সংবাদ মাধ্যমকে ভুল খবর ‘খাওয়াচ্ছে’ মোদি-শাহ! বিরক্ত মমতা

সংবাদ মাধ্যমকে ভুল খবর 'খাওয়াচ্ছে' মোদি-শাহ! বিরক্ত মমতা
সংবাদ মাধ্যমকে ভুল খবর 'খাওয়াচ্ছে' মোদি-শাহ! বিরক্ত মমতা

নজরবন্দি ব্যুরোঃ সংবাদ মাধ্যমকে ভুল খবর ‘খাওয়াচ্ছে’ মোদি-শাহ!  এমনই বিস্ফোরক অভিযোগ করেছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ঘটনার মূল কেন্দ্র বিন্দু কলাইকুন্ডার বৈঠক। ইয়াসের বিপর্যয়ের রাজ্যের পরিস্থিতি খতিয়ে দেখবেন একথা আগেই জানিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পরে কেন্দ্রের তরফে জানানো হয় একই দিনে রাজ্যে আসছেন প্রধানমন্ত্রীও। কথা ছিলো উভয়ের বৈঠকেরও।

আরও পড়ুনঃ টক টু কেএমসি! জামিন পেয়েই ভার্চুয়ালি জনসংযোগ ফিরহাদের

কিন্তু গোল বাধে সেখানেই। মুখ্যমন্ত্রীর মতে প্রশাসনিক বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন বিজেপি নেতারা, তাছাড়া আগের প্ল্যান মতো কাজ ছিলো তাঁর। সব মিলিয়ে মিনিট খানেক অপেক্ষা করে মোদিকে রাজ্যের ক্ষয় ক্ষতির হিসেব দিয়ে চপারে করে রওনা দেন দিঘার উদ্দেশ্যে। তার পর থেকেই শুরু হয় এক প্রকার তরজা।

দেশের প্রধানমন্ত্রীর বৈঠক এড়িয়ে গেছেন বলে একে একে কেন্দ্রীয় নেতারা ট্যুইট করতে থাকেন। বিজেপি নেতা মন্ত্রীরা ট্যুইটে বলতে থাকেন মমতা মোদিকে অপেক্ষা করিয়েছেন আধা ঘন্টা।  তবে আজ মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন মোদি-শাহরা একতরফা তাঁকে অপমান করছেন। নবান্নর সাংবাদিক বৈঠক থেকে মমতা জানান, গণমাধ্যমকে প্রধানমন্ত্রীর সচিবালয় এবং কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সচিবালয় খেকে ভুল খবর দেওয়া হচ্ছে অহরহ। ভ্রান্ত ধারনা তৈরি হচ্ছে। তাই প্রথমে কিছু বলবেন না ভেবেও তিনি সিদ্ধান্ত নেন নিজের দিকের বক্তব্য রাখার।

সংবাদ মাধ্যমকে ভুল খবর ‘খাওয়াচ্ছে’ মোদি-শাহ! বিরক্ত মমতা, তাঁর মতে আগে রাজ্যের পরিকল্পনা জানানো হয়েছিলো, পরে সেই দিনেই প্রধানমন্ত্রী আসায় তিনি বাধ্য হয়ে নিজের প্ল্যান কাটছাঁট করেছিলেন, সঙ্গে তিনি জানিয়েছেন, ‘‘প্রধানমন্ত্রীর কপ্টার নামবে বলে আমাদের কপ্টার ২০ মিনিট আকাশে চক্কর কাটে। প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে মাত্র ১ মিনিটের জন্য দেখা করতে চাওয়ায় তাঁর এসপিজি জবাব দেন, ‘এক ঘণ্টা পর বলুন। এখন কিছু হবে না।’ আমাদের বসিয়ে রাখা হয়েছিল ওখানে।’’ সঙ্গে তিনি আরও যোগ করেন আবহাওয়া খারাপ থাকায় প্রধানমন্ত্রীর কাছে অনুমতি নিয়েই দিঘার উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছিলেন তিনি, তার পরেই অসত্য তথ্য প্রকাশ করা হচ্ছে, মিথ্যে রটনা ছড়ানো হচ্ছে সর্বত্র।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here