ব্রিগেড বদলা! লাইমলাইটে ভাগ বসাতে ৭’এই সভা মমতার।

ব্রিগেড বদলা! লাইমলাইটে ভাগ বসাতে ৭'এই সভা মমতার।
ব্রিগেড বদলা! লাইমলাইটে ভাগ বসাতে ৭'এই সভা মমতার।

নজরবনন্দি ব্যুরোঃ ব্রিগেড বদলা! ২০১৯ এর লোকসভা ভোটের পর বাংলায় বিরোধী দল হিসেবে উঠে এসেছে বিজেপি। আর এবার লক্ষ্য বাংলার মসনদ। সেই মতো বাকি রাজনৈতিক দলগুলির সঙ্গে পাল্লা দিয়ে গোটা বাংলা জুড়ে প্রচার চালাচ্ছে বিজেপি। দফায় দফায় বাংলায় আসছেন কেন্দ্রীয় নেতা মন্ত্রীরা। ঘোষণা হয়ে গেছে নির্বাচনের দিনক্ষণ। হাতে সময় নেই বেশি। তার মাঝেই সূত্রের খবর আগামী কয়েকদিনেই বাংলায় অমিত-মোদী জুটি সভা করবেন প্রায় ৭০ টি। আর তার সূচনা হয়তো আগামী ৭এর বিজেপি ব্রিগেড। কিন্তু সেই লাইমলাইটে ভাগ বসাতে ৭’এই সভা মমতার।

আরও পড়ুনঃ ‘আমার মাটি সইবে না’, বঙ্গে নারীসুরক্ষা প্রসঙ্গে হাথরাস’কথা এনে যোগীকে উত্তর সায়নীর

লোকসভা নির্বাচনের আগেও ব্রিগেডে সভা করেছিল বিজেপি, কিন্তু তা কার্যত ফ্লপ শোতে পরিনত হয়েছিল, সেই শোয়ের হিট তুলতেই এবার ৭’এ ব্রিগেড ডেকেছে তাঁরা। সভায় প্রধান বক্তা হিসেবে থাকবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। ব্রিগেড সফলের লক্ষ্যে অধিক মনোনিবেশ করতে কার্যত এই সপ্তাহকেই ব্রিগেড সপ্তাহ পালন করছে দল। বঙ্গ সফর বাতিল করেছেন অমিত শাহ্‌। একেবারে ৭এর মঞ্চে দেখা যাবে তাঁদের।

কিন্তু বিজেপিকে একটা গোটা দিনের সমস্ত লাইমলাইট ছেড়ে দিতে নারাজ তৃনমূল সুপ্রিমো। সূত্রের খবর অনুযায়ী ৭-এর ব্রিগেডের জন্য রাজ্যের সকল বিজপি নেতা কর্মী যখন কলকাতায় তখনই উত্তরবঙ্গে নিজের সভা করবেন তিনি। কলকাতায় দাঁড়িয়ে মোদী বক্তব্য রাখবেন বাংলাকে কীভাবে আরও শুদ্ধ বানাবেন আর তৃণমূল নেত্রী বয়ান দেবেন কী কী করেছেন তিনি। যদিও রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ জানিয়েছেন, উত্তরবঙ্গের কর্মী সমর্থককের ব্রিগেডে আসার জন্য তত্‍পর না হলেও চলবে। কারণ, সেখানে জেলাওয়াড়ি পৃথক সভা করবেন প্রধানমন্ত্রী।

ব্রিগেড বদলা! বদলায় বিশ্বাসী না হলেও তৃণমূল সুপ্রিমো প্রতিটা জবাব দেন বিরোধীদের। গত কয়েক মাসে বিজেপি রাজ্যে যেখানে যেখানে সভা করেছেন করেছে ঠিক তার আগে বা পড়ে সেসব স্থানে নিজের মনের কথা বলে এসেছেন মমতা বা তাঁর দলের কেউ না কেউ। এমনিতেও TMC‘র এক্স ফ্যাক্টর মমতার পাশের বাড়ির মেয়ের ইমেজ। তা মধ্যে এই মুহুর্তে টক্করে টক্করে চলচে শেষ মুহুর্তের লড়াই। বিশেষজ্ঞদের মতে এই লড়াই মেরুকরণের। এই লড়াই তৃনমূলের আর বিজেপির। এখন দেখার ৭এর মোদীর কলকাতা আর মুখ্যমন্ত্রীর শিলিগুড়ি সভা সেই বিভাজঙ্কে আরও কতটা স্পষ্ট করে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here