Kunal Ghosh: বৈশাখী দেখতে ভালো, মধুমাখা কথায় ভরিয়ে দিলেন কুণাল

নজরবন্দি ব্যুরোঃ দীর্ঘ সময় ধরে তৃণমূলে থাকার পর বিজেপিতে যোগদান করে মিছিলে হেঁটেছিলেন বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় এবং শোভন চট্টোপাধ্যায়। তারপর কড়া ভাষায় শোভন-বৈশাখীকে তুলোধনা করেছেন তৃণমূলের রাজ্য সম্পাদক কুণাল ঘোষ। “শোভন হচ্ছেন বৈশাখীর গ্ল্যাক্সো বেবি”। এমনও অবধি বলতে ছাড়েননি তৃণমূলের কুণাল। অথচ বুধবার দলনেত্রীর সঙ্গে শোভন-বৈশাখীর সাক্ষাত বদলে দিল সব কিছু। ভোল বদলে ফেললেন কুণালও।

আরও পড়ুনঃ Rhea Chakraborty: মাদক মামলায় স্বস্তি নেই রিয়া ও ভাই সৌভিকের, NCB’র খসড়া চার্জশিটে অভিযুক্ত তারা

255163448 2964091477182161 1705711719248638256 n

এক বছর পর একেবারে উল্টো সুরে কুণাল বললেন, আমার সঙ্গে শোভন এবং বৈশাখীর ব্যক্তিগত সম্পর্ক খারাপ ছিল না। একুশে ওরা আমাদের দলকে আক্রমণ করছিল। জবাব দিতে আমিও রাজনৈতিক আক্রমণ করছিলাম। এখন দল যদি ওদের গ্রহণ করে তাহলে আমার কিছু বলার নেই।

বৈশাখী দেখতে ভালো, সুনামে ভরিয়ে দিলেন কুণাল 
বৈশাখী দেখতে ভালো, সুনামে ভরিয়ে দিলেন কুণাল 

গত বছরের বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়কে ফুলটুসি বলেছিলেন কুণাল। এখন বললেন, বৈশাখী দেখতে ভালো, ভালো সাজে, ভালো কথাও বলে। আমি দেখি আমার দেখতে ভালো লাগে। এর থেকে একটা বিষয় স্পষ্ট আগামী দিনে তৃণমূলের সঙ্গে দূরত্ব মিটিয়ে কাছাকাছি আসতে চলেছেন শোভন-বৈশাখী। সেই জন্যই সুর পাল্টে ফেললেন কুণাল ঘোষ।

255414639 2964101007181208 6422285790564050196 n

প্রসঙ্গত, গতকালই হঠাৎ করে নবান্নে উপস্থিত হন শোভন চট্টোপাধ্য্যায়। সঙ্গে ছিলেন বান্ধবী বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়। সোজা চলে যান ১৪ তলায়। সেখানে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে কথা হয়েছে দুই জনের। পরে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে শোভন চট্টোপাধ্যায় বলেন, মতা’দির লক্ষ্য বাস্তবায়িত করাই আমার কাজ। ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত নেওয়ার জায়গা নিশ্চয়ই আমার।

বৈশাখী দেখতে ভালো, সুনামে ভরিয়ে দিলেন কুণাল 

বৈশাখী দেখতে ভালো, সুনামে ভরিয়ে দিলেন কুণাল 
বৈশাখী দেখতে ভালো, সুনামে ভরিয়ে দিলেন কুণাল 

তিনি আরও বলেন, কিন্তু রাজনৈতিক কোনও সিদ্ধান্ত, আমার রাজনৈতিক জীবন— সবটাই মমতাকেন্দ্রিক। মমতা’দির ইচ্ছা বাস্তবায়িত করাই আমার লক্ষ্য। দিদির নির্দেশ পেলেই কাজ শুরু করবে শোভন। জল্পনা উস্কে দেন বৈশাখী। শোনা যাচ্ছে, সবকিছু ঠিক্টহাক থাকলে ২১ জুলাইয়ের মঞ্চে তৃণমূলের পতাকা হাতে তুলে নেবেন এই চর্চিত যুগল।