Weather Update: শীতের আমেজ এ ব্যঘাত, আজ থেকেই বৃষ্টি শুরু জেলায়

শীতের আমেজ এ ব্যঘাত, আজ থেকেই বৃষ্টি শুরু জেলায়
শীতের আমেজ এ ব্যঘাত, আজ থেকেই বৃষ্টি শুরু জেলায়

নজরবন্দি ব্যুরোঃ  শহরে ফের বাড়ল তাপমাত্রা। উত্তুরে আমেজ থাকলেও তাপমাত্রা বাড়ছে। আজ সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৯.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস। শুক্রবার যা ছিল ১৯.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩০. ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আজ, শনিবার মূলত পরিস্কার আকাশ থাকলেও দক্ষিণবঙ্গের কয়েকটি জেলায় বৃষ্টির সম্ভাবনা থাকছে। পূর্ব মেদিনীপুর-সহ দক্ষিণবঙ্গের বেশ কিছু জেলায় বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর।

আরও পড়ুনঃ US President: ক্ষমতা হস্তান্তর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে, জো বাইডেনের স্থলাভিষিক্ত কমলা হ্যারিস!

বঙ্গোপসাগরে তৈরি হয়েছে নিম্নচাপ যা অন্ধ্রপ্রদেশ, তামিলনাড়ু উপকূলের দিকে এগোচ্ছে। এর ফলে সপ্তাহান্তে ফের একবার পূবালি হাওয়ার প্রভাবে রাজ্যে জলীয় বাষ্প ঢুকবে। তার জেরে কমবে শীতের আমেজ। সোমবার থেকে কলকাতা-সহ রাজ্যের উপকূলবর্তী জেলাগুলিতে ফের বৃষ্টির ভ্রুকুটি।

এক নিম্নচাপের প্রভাব কাটতে না-কাটতেই কাঁটা আরও এক নিম্নচাপ। ঠান্ডায় বাধা দেবে নতুন পশ্চিমী ঝঞ্ঝাও। রবিবার, সোমবার নাগাদ ফের বিক্ষিপ্ত বৃষ্টিরও সম্ভাবনা দক্ষিণবঙ্গে। নিম্নচাপের সম্ভাব্য অভিমুখ তামিলনাড়ু-অন্ধ্রপ্রদেশ উপকূল। তবে দূরে থাকলেও আরও একবার ঠান্ডা আমেজের বারোটা বাজাবে সাগরের নিম্নচাপ। বৃষ্টি চিন্তায় রাখবে বাংলার চাষিদেরও।

আলিপুর আবহাওয়া দফতর সূত্রের খবর, চলতি সপ্তাহের শেষে আরব সাগরে এবং মধ্য বঙ্গোপসাগরের ওপরে নিম্নচাপ অক্ষরেখা অবস্থান করবে। তার জেরে আবার বৃষ্টিপাত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। প্রচুর পরিমাণে জলীয়বাষ্প ঢুকতে পারে রাজ্যে। তার ফলে বাধা পাবে শীত। জাঁকিয়ে শীত পড়তে আমাদের ১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর।

আলিপুর হাওয়া অফিস সূত্রে খবর, বঙ্গোপসাগর থেকে আসা জ্বলীয়বাষ্পের জেরেই দক্ষিণের জেলাগুলিতে গত দুদিন বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা ছিল। বাদ ছিল না মহানগরও। তবে গত কয়েক দিনে আবার দক্ষিণ ২৪ পরগনা-সহ দুই মেদিনীপুর ও ঝাড়গ্রামের সব জায়গায় অল্পসল্প বৃষ্টি হয় অল্প।

শীতের আমেজ এ ব্যঘাত, জানুন কোন কোন জেলায় শুরু হচ্ছে বৃষ্টি 

Warm winter continues over East India | Skymet Weather Services
শীতের আমেজ এ ব্যঘাত, আজ থেকেই বৃষ্টি শুরু জেলায়

রাজ্যে উত্তুরে হাওয়া ঢোকায় বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছিল পূবালি বাতাস। তার দাপটে বঙ্গোপসাগর থেকে রাজ্যে প্রচুর জলীয় বাষ্প ঢুকছিল। এর প্রভাবে গত কয়েকদিনে ঝিরিঝিরি বৃষ্টি হয়েছে কলকাতা ও তার পার্শ্ববর্তী এলাকায়। এখন সেই বাধা কিছুটা কেটেছে।