ভারতের বিমান হানায় ৩০০ জঙ্গি বালাকোটে মারা গিয়েছিল, স্বীকার প্রাক্তন পাক কৃটনীতিবিদের!

ভারতের বিমান হানায় ৩০০ জঙ্গি বালাকোটে মারা গিয়েছিল,  স্বীকার প্রাক্তন পাক কৃটনীতিবিদের!

নজরবন্দি ব্যুরো: ভারতের বিমান হানায় ৩০০ জঙ্গি বালাকোটে মারা গিয়েছিল, ২০১৯ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারি মাসে পুলওয়ামাতে জঙ্গি হামলার কথা অবশ্যই আপনাদের মনে আছে। সেই জঙ্গি হামলায় বহু সিআরপিএফ জওয়ান শহিদ হয়েছিলেন। ভারতের ইতিহাসে কলঙ্কময় দিন ছিল সেদিন। পুলওয়ামাতে জঙ্গি হানার কয়েকদিন বাদেই ভারত পাকিস্তানের বালাকোটে জঙ্গি ঘাঁটিতে বিমান থেকে বোমাবর্ষণ করে।

আরও পড়ুন: ভয়াবহ দুর্ঘটনার কবলে শোয়েব মালিক, কেমন আছেন পাকিস্তানের অলরাউন্ডার?

সেই সময় পাকিস্তান থেকে বলা হয়েছিল, বালাকোটে কোনও জঙ্গি ঘাঁটি ছিল না। সেই ভয়ঙ্কর হামলার হওয়ার দু’বছর পরে পাকিস্তানের এক প্রাক্তন কূটনীতিক টিভি চ্যানেলের সামনে স্বীকার করলেন, ভারতের বিমান হানায় নিহত হয়েছিল ৩০০ জঙ্গি। এই কূটনীতিকের নাম আগা হিলালি। তিনি টিভির বিতর্কে পাকিস্তানের সেনাবাহিনীর পক্ষে বক্তব্য পেশ করেন।

প্রসঙ্গত,পুলওয়ামায় জঙ্গি হানায় ৪০ জন সিআরপিএফ জওয়ান নিহত হন। ওই হামলার পিছনে ছিল পাকিস্তানের মদতপুষ্ট জৈশ ই মহম্মদ। তারপরে ২৬ ফেব্রুয়ারি ভারতের বায়ুসেনা পাকিস্তানের ভিতরে ঢুকে জঙ্গি ঘাঁটিতে বোমাবর্ষণ করে। ২৭ ফেব্রুয়ারি পাকিস্তানের বায়ুসেনার এফ ১৬ যুদ্ধবিমান ভারতে আক্রমণ করতে এলে ভারতীয় বায়ুসেনা তাদের মেরে তাড়ায়। এই সময় উইং কম্যান্ডার অভিনন্দন বর্তমানের মিগ ২১ যুদ্ধবিমান ভেঙে পড়ে। তিনি পাকিস্তানের সেনার হাতে বন্দি হন।৬০ ঘণ্টা পাকিস্তানের জেলে কাটিয়ে দেশে ফেরেন অভিনন্দন।

ভারতের বিমান হানায় ৩০০ জঙ্গি বালাকোটে মারা গিয়েছিল, সম্প্রতি পাকিস্তানের উর্দু চ্যানেলে কূটনীতিক আগা হিলালি বলেন, “ভারত আন্তর্জাতিক সীমান্ত লঙ্ঘন করেছিল। তারা কার্যত যুদ্ধ চালিয়েছিল পাকিস্তানের বিরুদ্ধে। যতদূর জানি, ৩০০ জন নিহত হয়েছিলেন। আমরা ভারতের হাই কম্যান্ডকে টার্গেট করেছিলাম।”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x