চন্দনার বিরহে পাগলের মত অবস্থা কৃষ্ণর, ঝাড়ফুঁক শেষ সম্বল রুম্পার।

চন্দনার বিরহে পাগলের মত অবস্থা কৃষ্ণর, ঝাড়ফুঁক শেষ সম্বল রুম্পার।
চন্দনার বিরহে পাগলের মত অবস্থা কৃষ্ণর, ঝাড়ফুঁক শেষ সম্বল রুম্পার।

নজরবন্দি ব্যুরোঃ চন্দনার বিরহে পাগলের মত অবস্থা কৃষ্ণর। বাড়ি থেকে পালিয়ে স্বামী সন্তানকে ছেড়ে দ্বিতীয় বিয়ে করেছেন বিজেপি বিধায়িকা চন্দনা বাউরি, তাঁর দ্বিতীয় বিয়ে নিয়েই তোলপাড় রাজনৈতিক মহল। জানা গিয়েছে, তাঁরই বিবাহিত গাড়ি-ড্রাইভারকে দ্বিতীয়বার বিবাহ করেন। এরপর সমাজের তাড়নায় হোক বা রাজনৈতিক কারনে আলাদা হতে হয়েছে বিজেপি বিধায়িকা চন্দনা এবং কৃষ্ণ।

আরও পড়ুনঃ করোনা আবহেও বিপুল আয় বৃদ্ধি বিজেপি-র, ধারে কাছে নেই বাম-কংগ্রেস।

অসুস্থ স্বামীকে চোখের আড়াল করছেন না কৃষ্ণ কুণ্ডু প্রথম স্ত্রী রুম্পাদেবী। চন্দনাকে বিয়ে করলেও স্বামীর সাথেই সংসার করতে চান তিনি। তাঁকে বিয়ে করেই অসুস্থ হয়ে পড়েছেন স্বামী। পাশাপাশি, সন্তানদের ভবিষ্যত্‍ নিয়ে দুশ্চিন্তায় দিন কাটাচ্ছেন রুম্পাদেবী। এদিকে চিকিৎসকরা বলেছেন পাগল হয়ে গিয়েছেন কৃষ্ণ। রূম্পা দেবীকে কার্যত জবাব দিয়েছেন চিকিৎসকরা। তাই এখন ঝাড়ফুঁকে আস্থা রাখছেন তিনি।

চন্দনার ভুত মাথা থেকে নামাতে শনিবারই কৃষ্ণকে নিয়ে বর্ধমান জেলার পানাগড়ে একটি ঠাকুরবাড়িতে যান রুম্পা। তিনি বলেন,  ‘‘আমার মাথার ঠিক নেই। সারাক্ষণ চন্দনা-চন্দনা করছে। এখানে এসেছি। দেখি কী হয়।’’ চন্দনার প্রেমিক সংবাদ মাধ্যমে ড্রাইভার হিসেবে পরিচিতি পেলেও আসলে তিনি বিজেপির শালতোড়া বিধানসভার সহ-আহ্বায়ক। চন্দনার সঙ্গে বিজেপি নেতা কৃষ্ণের পরকীয়ার অভিযোগ ওঠে গত ১৮ অগস্ট।

চন্দনার বিরহে পাগলের মত অবস্থা কৃষ্ণর

চন্দনার বিরহে পাগলের মত অবস্থা কৃষ্ণর, ঝাড়ফুঁক শেষ সম্বল রুম্পার।

কৃষ্ণর স্ত্রী অভিযোগ দায়ের করেন থানায়। সেই অভিযোগের সত্যতা স্বীকার করে বাঁকুড়ার পুলিশ সুপার ধৃতিমান সরকার বলেন, ‘‘রুম্পা কুন্ডু একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। আমরা অভিযোগ খতিয়ে দেখে প্রয়োজনীয় তদন্ত ও পদক্ষেপ করব।’’ যদিও দ্বিতীয় বিয়ে এবং কৃষ্ণর সাথে প্রনয়ের কথা ফেসবুক লাইভে অস্বিকার করেন বিজেপি বিধায়িকা চন্দনা বাউড়ি। এদিকে চন্দনার বিরহে পাগলের মত অবস্থা কৃষ্ণর। আপাতত রুম্পাদেবী ভরসা রাখছেন ঝাড়ফুঁকেই।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here