ভ্যাকসিনের অপচয় ঠেকাতে রাজ্যের ২০৭টি টিকাকরণ কেন্দ্রই নির্দেশিকা স্বাস্থ্য ভবনের!

ভ্যাকসিনের  অপচয় ঠেকাতে রাজ্যের ২০৭টি টিকাকরণ কেন্দ্রই নির্দেশিকা  স্বাস্থ্য ভবনের!

নজরবন্দি ব্যুরো: দ্বিতীয় দফার করোনার টিকাকরণ আজ রাজ্যজুড়ে। এই দ্বিতীয় দফায় করোনার টিকাকরণ সকাল ৯টা থেকেই রাজ্যের ২০৭ কেন্দ্রে শুরু হয়েছে। করোনা ভ্যাকসিনেশনের লক্ষপুরণ হয়নি প্রথম দিন। প্রচুর পরিমাণ ভ্যাকসিনের অপচয় হওয়ার অভিযোগও উঠেছিল। তাই দ্বিতীয় দফায় আটঘাট বেঁধে নামছে স্বাস্থ্য ভবন।

আরও পড়ুনঃ নাগরিকত্ব কার্ড নিয়ে ফের প্রশ্ন শান্তনুর, অস্বস্তি বাড়াচ্ছে বিজেপির অন্দরের।

স্বাস্থ্য ভবন কোনওভাবেই ভ্যাকসিনের  যাতে অপচয় না হয়, তা নিশ্চিত করতে রাজ্যের ২০৭টি টিকাকরণ কেন্দ্রকেই নির্দেশিকা পাঠিয়েছে।

প্রসঙ্গত, কোভিশিল্ডের  একেকটি ভায়াল থেকে টিকা দেওয়ার কথা দশজনকে। গ্রহীতা পিছু টিকা দেওয়ার কথা ৫ মিলিলিটার। কিন্তু অনেক ক্ষেত্রে দেখা গিয়েছে ৫ মিলিলিটার করে ভ্যাকসিন ১০ জনকে দেওয়ার পরও ভায়ালে কিছু পরিমাণ ভ্যাকসিন অবশিষ্ট থাকছে। প্রথম দফায় স্বাস্থ্যকর্মীরা ওই অবশিষ্ট ভ্যাকসিন ব্যবহার না করে ফেলে দিচ্ছিলেন বলে অভিযোগ।

কিন্তু স্বাস্থ্য ভবন দ্বিতীয় দফায় সেই ঘটনার পুনরাবৃত্তি চায় না। সেকারণে দ্বিতীয় দফার টিকাকরণের  আগে স্বাস্থ্য ভবনের তরফে একটি নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে। যাতে বলা হয়েছে, “কোনও ভ্যাকসিনের অপচয় করা যাবে না।

একটি ভায়াল থেকে ১০ জনকে টিকা দেওয়ার পর যতটা অবশিষ্ট থাকবে, সেটাও ব্যবহার করতে হতে। অবশিষ্ট ভ্যাকসিনের পরিমাণ যদি ৫ মিলিলিটার হয়, তাহলে তো সমস্যাই নেই। অন্য গ্রহীতার শরীরে তা দেওয়া যাবে। আর যদি তার কমও হয়, তাও ব্যবহার করতে হবে।”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x