শুরু হল Google pixel 4A এর সেল, ছাড় থাকছে অনেকটাই।

শুরু হল Google pixel 4A এর সেল, ছাড় থাকছে অনেকটাই।

নজরবন্দি ব্যুরো: শুরু হল Google pixel 4A এর সেল, Google pixel 4A ছেলের জন্য উপলব্ধ হলো আজ থেকে ভারতে। এই ফোনটি কিনতে পারবেন ই-কমার্স সাইট Flipkart থেকে। এই ফোনের ওপর ডিসকাউন্ট পাওয়া যাবে ৩,০০০ টাকার বেশি লঞ্চ অফার হিসাবে। এই ফোনটি লঞ্চ হয়েছিল গ্লোবাল মার্কেটে গত আগস্ট মাসে। এরপর ভারতে আনা হয় এই ফোনটিকে গত সপ্তাহে।

আরও পড়ুনঃ তরুণ ও আপাত দৃষ্টিতে সুস্থ ব্যক্তিরা ২০২২ সালের আগে কোভিড ভ্যাকসিন পাবে না, জানালো WHO

ভারতে Google pixel 4A এর দাম ৩১,৯৯৯ টাকা। ৩১,৯৯৯ টাকার এই ফোনটিতে পাওয়া যাবে ৬ জিবি রেম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ। ফোনটি পাওয়া যাবে কালো রঙে। কিন্তু এই ফোনটি Flipkart থেকে লঞ্চ অফার হিসেবে কেনা যেতে পারে ২৮,২৪৯ টাকায়। কারণ এই ফোনের উপর সাধারণভাবেই ই-কমার্স সাইট Flipkart ডিসকাউন্ট দিচ্ছে ২,০০০ টাকা। আবার ১,৭৫০ টাকা পর্যন্ত ছাড় পাওয়া যাবে SBI এর ক্রেডিট ব্যবহার করলে। শুধু তাই নয়, ডিসকাউন্ট দেওয়া হবে এস বি আই ডেবিড কার্ড গ্রাহকদের ও ১,২৫০ টাকা পর্যন্ত। আবার ক্যাশব্যাক পেতে পারেন ১২৫ টাকা Paytm UPI ব্যবহার করলে। ৫,০০০ টাকা থেকে শুরু হচ্ছে ফোনটির নো কস্ট ইএমআই।

আসুন জেনে নেওয়া যাক Google pixel 4A এর স্পেসিফিকেশন সম্বন্ধে- এই ফোনটিতে অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে আছে এন্ড্রয়েড ১০। এই ফোনে থাকছে ৫.৮১ ইঞ্চি ফুল এইচডি প্লাস OLED ডিসপ্লে। এর এক্সপেক্ট রেশিও ১৯.৫:৯ এবং পিক্সেল রেজুলেশন ১,০৮০×২,৩৪০। এই ফোনটিতে থাকছে মর্ডান ফান্স হল ডিসপ্লে (বামদিকে কোনায়), যেখানে উপলব্ধ এফ/২.০ অ্যাপারচারের সাথে ৮ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা। অটো ফোকাস নেই এই ফ্রন্ট ক্যামেরায়। Google pixel 4A এর পিছনে রয়েছে ১২.২ মেগাপিক্সেল (এফ/১.৭ অ্যাপারচার) এলইডি ফ্ল্যাশ যুক্ত ডুয়েল পিক্সেল ফেস ডিটেকশন। এই ক্যামেরায় সাপোর্ট করে ইলেকট্রনিক ইমেজ স্ট্যাবিলাইজেশন (ইআইএস), অপটিক্যাল ইমেজ স্ট্যাবিলাইজেশন (ওআইএস), এবং একটি ৭৭ ডিগ্রি ফিল্ড অফ ভিউ। এছাড়াও ক্যামেরার অন্যান্য বৈশিষ্ট্য গুলির মধ্যে রয়েছে ডুয়েল এক্সপোজার কন্ট্রোল+লাইভ এইচডিআর, পোর্ট্রেট মোড এবং নাইট সাইট।

শুরু হল Google pixel 4A এর সেল, Google pixel 4A তে রয়েছে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৭৩০ জি প্রসেসর। এই ফোনটিতে আছে লক স্ক্রীন এর জন্য অলওয়েজ অন ডিসপ্লে ফিচার। ফোনটি পাওয়া যাবে ৬ জিবি রেম ও ১২৮ জিবি স্টোরেজ এ। যদিও ফোনটি স্টোরিজ বানানো যাবেনা মাইক্রো-এসডি কার্ডের মাধ্যমে।

ফোনটি এসেছে Titan M security মডিউলের সাথে। এটি দেওয়া হয়েছে ৩,১৪০ এমএএইচ ব্যাটারি। সাথে রয়েছে ১৮ ওয়াটের এডাপ্টার। কোম্পানির দাবি ফোনটি ব্যাকআপ দেবে ২৪ ঘন্টা পর্যন্ত। যদিও পাবেন না এই ফোনে ওয়ারলেস চারজিং সাপোর্ট। চার্জিং এর জন্য এটি দেওয়া হয়েছে ইউএসবি টাইপ সি পোর্ট। এই ফোনটিতে পাবেন দুটি মাইক্রোফোন ও স্টেরিও স্পিকার। এছাড়াও পাবেন ৩.৫ এমএম হেডফোন জ্যাক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x