Partha Chatterjee: ‘পার্থর বাড়ি বেআইনি হলে ভেঙে দেব’, সাফ জানিয়ে দিলেন ফিরহাদ।

'পার্থর বাড়ি বেআইনি হলে ভেঙে দেব', সাফ জানিয়ে দিলেন ফিরহাদ।
পার্থ ও অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের এই বাড়িটি এখন অন্যতম আলোচনার বিষয়বস্তু হয়ে দাঁড়িয়েছে।

নজরবন্দি ব্যুরোঃ ৯৫ নম্বর রাজডাঙা মেইন রোড। সেখানে তিনটি প্লট রয়েছে। পুরনিগমের কর রাজস্ব খাতার তালিকা অনুযায়ী ১০, ১১ এবং ১২। ‘ইচ্ছে’ নামে অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের যে বাড়ি, এবার সেই বাড়িটি নিয়েই তদন্তের নির্দেশ দিল কেএমডিএ। পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের অধীনে ২০১১ সালে বাড়িটি তৈরির কাজ শুরু হয়। ২০১২ সালে কাজ শেষ হয়। এই বাড়িটির জমিজমা নিয়ে তদন্ত হবে এবার। তদন্তে গোলমাল ধরা পড়লে জমি ফেরত নিয়ে বাড়ি ভেঙে দেবে কেএমডিএ।

আরও পড়ুনঃ অর্পিতার সাথে বিয়ে হয়েছিল পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের, ‘অপা’-কে ঘিরে বিস্ফোরক তথ্য প্রকাশ্যে।

৯৫ নম্বর রাজডাঙা মেইন রোড। সেখানে তিনটি প্লট রয়েছে। পুরনিগমের কর রাজস্ব খাতার তালিকা অনুযায়ী ১০, ১১ এবং ১২। কিন্তু ১১ নম্বর প্লটে ‘ইচ্ছে’ নামে বাড়িটি রয়েছে বলে পুরনিগমের খাতায় উল্লেখ রয়েছে। বাকি ১০ এবং ১২ নম্বর প্লটে বাড়ি থাকলেও পুরনিগমের খাতায় তা রয়েছে ফাঁকা জমি হিসাবে। এমনকী ১১ নম্বর প্লট, যেখানে বাড়ি ২ কাঠা ৯ ছটাক এর উপর তৈরি।

Firhad Hakim

তার জন্য পুরনিগমকে বার্ষিক কর দেওয়া হত ২৩৫৬ টাকা। অথচ এই জায়গা থেকে পুরনিগমের কর পাওয়ার কথা ১ লক্ষ ৭৫ হাজার টাকার উপরে। পুরনিগমের খাতায় বাড়িটির অস্তিত্ব নেই। অথচ সেখানে দিনের পর দিন ব্যবসা চলেছে। অর্পিতা মুখোপাধ্যায় নিজে দিনের পর দিন এসেছেন বলে সূত্রের খবর।

'পার্থর বাড়ি বেআইনি হলে ভেঙে দেব', সাফ জানিয়ে দিলেন ফিরহাদ।
‘পার্থর বাড়ি বেআইনি হলে ভেঙে দেব’, সাফ জানিয়ে দিলেন ফিরহাদ।

আজ এই নিয়ে প্রশ্ন করা হয় কলকাতা পুরসভার মেয়র ফিরহাদ হাকিমকে। ববি হাকিম উত্তরে বলেন, ”অভিযোগ পেলে কেএমডিএ খতিয়ে দেখবে। তারপর ভেঙে দেব।” পরে ফিরহাদ জানান, “ইতিমধ্যেই তদন্ত শুরু হয়েছে।” কলকাতার মেয়র এই প্রসঙ্গে হাইকোর্টের একটি রায় উদ্ধৃত করেন। তিনি বলেন, বিচারপতি ভগবতীপ্রসাদ বন্দ্যোপাধ্যায় রায় দিয়েছিলেন, সরকারের জায়গায় বেআইনি বাড়ি হলে সেই বাড়ি সমেত জমিটি নিয়ে নিতে পারে প্রশাসন।

‘পার্থর বাড়ি বেআইনি হলে ভেঙে দেব’, সাফ জানিয়ে দিলেন ফিরহাদ।

partha firhad

তাই যদি বেয়াইনি নির্মান হয়ে থাকে। সে যার বাড়িই হোক না কেন, জমির দখল নিয়ে বাড়ি ভেঙে দেবে KMDA.