আরও এক ভুয়ো CBI অফিসারের খোঁজ! চাকরি দেবার নামে তুলেছেন লক্ষ লক্ষ টাকা

আরও এক ভুয়ো CBI অফিসারের খোঁজ! চাকরি দেবার নামে তুলেছেন লক্ষ লক্ষ টাকা
আরও এক ভুয়ো CBI অফিসারের খোঁজ! চাকরি দেবার নামে তুলেছেন লক্ষ লক্ষ টাকা

নজরবন্দি ব্যুরোঃ আরও এক ভুয়ো CBI অফিসারের খোঁজ! এবারের ঘটনা হাওড়ার চড়ক ডাঙ্গার এক বাসিন্দা কে নিয়ে। নাম শুভদীপ বন্দোপাধ্যায়। অভিযোগ দীর্ঘদিন ধরেই এই শুভদীপ সিবিআই অফিসার পরিচয় দিয়ে এসেছেন নিজেকে। অবশেষে মে মাসে তার স্ত্রী তার বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন আর সেই অভিযোগের সূত্র ধরে বেরিয়ে এসেছে পুরো এই অসত্য ঘটনাটি।

বছর দেড়েক আগে নয়না বন্দ্যোপাধ্যায় কে বিয়ে করেন শুভদীপ। নয়নার অভিযোগ সিবিআই অফিসার বলে পরিচয় দিয়ে দেড় বছর আগে তাঁদের বিয়ে হয়। কিন্তু ধীরে ধীরে নয়না দেবী বুঝতে পারেন তার স্বামী শুভদীপ বন্দ্যোপাধ্যায় আদতে কোন সিবিআই অফিসার নন। আর তার প্রমাণও হাতে আসে, সেই মোতাবেক শনিবার পুলিশে লিখিত আবেদন জানান নয়না বন্দ্যোপাধ্যায়।

আরও পড়ুনঃ কলকাতা হাইকোর্টে নেই পর্যাপ্ত বিচারপতি, দিনে দিনে জমছে মামলা

নয়না জানান সিবিআই অফিসার হিসেবে তার সঙ্গে তার বিয়ে হয় কিন্তু বিয়ের কিছুদিন পরেই শুভদীপ কে কাজে যেতে আর দেখা যায়নি। সন্দেহ শুরু হয় তখন থেকেই। তারপর শুভদীপ এর কাগজপত্র দেখতে শুরু করেন নায়না। গোপনে গিয়ে বিভিন্ন সরকারি আধিকারিকদের সঙ্গে কথা বলেন তারপর ধীরে ধীরে তিনি জানেন শুভদীপ বন্দ্যোপাধ্যায় নামে কোন অফিসার নাকি নেই। প্রায় চার মাস ধরে নানা জায়গা থেকে শুভদীপ এর বিরুদ্ধে তথ্য প্রমাণ জোগাড় করেন স্ত্রী নয়না।

খোঁজ নিয়ে জানেন চাকরি দেওয়ার নাম করে অনেকের সঙ্গেই প্রতারণা করেছে শুভদীপ। হাতিয়েছে লক্ষ লক্ষ টাকা। এই নিয়ে স্বামী শুভদীপ কে তিনি জিজ্ঞেস করলে শুভদীপ সব কিছুই স্বীকার করেন। আর এই নিয়েই স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কথা-কাটাকাটিও হয়। স্ত্রীর নয়না দেবী আরো অভিযোগ করেন এলাকায় নীল বাতি গাড়ি নিয়েই ঘুরতেন শুভজিৎ।

আরও এক ভুয়ো CBI অফিসারের খোঁজ! চাকরি দেবার নামে তুলেছেন লক্ষ লক্ষ টাকা 

এমনকি নবান্নের সামনে থেকে নাকি গাড়ি নিয়ে ঘুরে বেরিয়েছেন এই অভিযুক্ত। প্রতারিত হওয়ার পরে বিবাহ বিচ্ছেদের মামলা করেন স্বামীর বিরূদ্ধে। থানায় লিখিত অভিযোগও করেন। শুভদীপের বাবা রাজকুমার বন্দ্যোপাধ্যায় অবসরপ্রাপ্ত কেন্দ্রীয় সরকারী কর্মী। তিনি জানান, ছেলে টাকা আদায়ের জন্য তাঁর উপরেও নির্যাতন করতেন। অবসরের পর পাওয়া সব টাকা জোর নিয়ে নিয়েছিলেন তাঁর ছেলে।

পরিবার সূত্রে খবর, শুভদীপ এখন কলকাতায় নেই। দিল্লিতে রয়েছেন বলে জানা গিয়েছে। পরিবারকে শুভদীপ জানিয়েছেন, তিনি ভুল করেছেন। হাওড়া আদালতে তিনি আত্মসমর্পণ করতে চান। শুভদীপের মা জানিয়েছেন, যে ভাবে প্রতারণা করেছে তাঁর ছেলে তা মেনে নেওয়া যায় না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here