দুয়ারে সরকারের এক নম্বরে ‘লক্ষীর ভান্ডার’, ‘স্বাস্থ্যসাথী’ রয়েছে দ্বিতীয় স্থানে

দুয়ারে সরকারের এক নম্বরে 'লক্ষীর ভান্ডার', 'স্বাস্থ্যসাথী' রয়েছে দ্বিতীয় স্থানে
দুয়ারে সরকারের এক নম্বরে 'লক্ষীর ভান্ডার', 'স্বাস্থ্যসাথী' রয়েছে দ্বিতীয় স্থানে

নজরবন্দি ব্যুরো: দুয়ারে সরকারের এক নম্বরে ‘লক্ষীর ভান্ডার’, প্রথম ‘দুয়ারে সরকার’ কর্মসূচিতে স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্পে মানুষের আগ্রহ ছিল সব চেয়ে বেশি। বেশির ভাগ মানুষই সেই সময় স্বাস্থ্যসাথী কার্ডের জন্য আবেদন জানিয়েছিলেন। দ্বিতীয় দুয়ারে সরকার কর্মসূচিতে কিন্তু আকর্ষণের একেবারে কেন্দ্রবিন্দুতে আছে লক্ষ্মীর ভান্ডার। তবে এ বারেও চাহিদার দিক থেকে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্প।

আরও পড়ুনঃট্যুইটারে ট্রেন্ড #TMCPFoundationDay, রাজ্য জুড়ে ঝড় তুলছে মমতার ছাত্র-যুবরা
প্রশাসনিক সূত্রের খবর, লক্ষ্মীর ভান্ডারে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত আগ্রহ দেখিয়েছেন প্রায় ৯৪.৩০ লক্ষ মানুষ। আর স্বাস্থ্যসাথীতে এই সংখ্যা অন্তত ২৬.১৬ লক্ষ। প্রথম দুয়ারে সরকার কর্মসূচির পরে প্রশাসন জানিয়েছিল, আবেদনকারীদের মধ্যে অন্তত ৮৫.১৩ লক্ষ মানুষ স্বাস্থ্যসাথী কার্ড চেয়ে আবেদন করেছিলেন।

জেলা প্রশাসনগুলির তরফ থেকে জানা গিয়েছে, গত বার আবেদন করেও যারা কার্ড পাননি অথবা যাঁদের কার্ডে সংশোধন প্রয়োজন, তাঁরা এ বার স্বাস্থ্যসাথী কার্ডের জন্য বিভিন্ন শিবিরে যোগাযোগ করছেন। সংশ্লিষ্ট মহলের কর্তাদের বক্তব্য, লক্ষ্মীর ভান্ডার প্রকল্পে নথিভুক্ত হওয়ার অন্যতম মাধ্যম স্বাস্থ্যসাথী। তাই স্বাস্থ্যসাথী কার্ডের জন্যও এ বার আগ্রহ ব্যাপক।

দুয়ারে সরকারের এক নম্বরে ‘লক্ষীর ভান্ডার’, ‘স্বাস্থ্যসাথী’ রয়েছে দ্বিতীয় স্থানে

দুয়ারে সরকারের এক নম্বরে ‘লক্ষীর ভান্ডার‘, কিন্তু শিবিরগুলিতে স্বাস্থ্যসাথী কার্ডের ক্ষেত্রে উপভোক্তা-সংখ্যার নিরিখে প্রথম পাঁচে রয়েছে দক্ষিণ ২৪ পরগনা, মুর্শিদাবাদ, উত্তর ২৪ পরগনা, পূর্ব মেদিনীপুর এবং নদিয়া। তবে প্রশাসনিক সূত্রের খবর, পরিষেবা প্রদানের দিক থেকে এগিয়ে আছে পূর্ব মেদিনীপুর। ১৬ অগস্ট থেকে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত ওই জেলায় ৫৩ হাজারের কিছু বেশি উপভোক্তাকে পরিষেবা দেওয়া হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here