মাত্র দেড় মাসেই অভূতপূর্ব সাফল্য, দু’কোটি মানুষের কাছে পৌঁছাল ‘দুয়ারে সরকার’! উচ্ছ্বসিত মুখ্যমন্ত্রী

মাত্র দেড় মাসেই অভূতপূর্ব সাফল্য, দু’কোটি মানুষের কাছে পৌঁছাল ‘দুয়ারে সরকার’! উচ্ছ্বসিত মুখ্যমন্ত্রী

নজরবন্দি ব্যুরো: মাত্র দেড় মাসেই অভূতপূর্ব সাফল্য, প্রায় দু কোটি মানুষের দুয়ারে দুয়ারে সরকার পৌঁছে গিয়েছে। আর সময়ের আগে এরকম লক্ষ্যপূরণ দেখে স্বাভাবিকভাবেই উচ্ছসিত হয়ে উঠেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বাংলায় বিধানসভা ভোটের আগে মানুষের মধ্যে এই প্রতিক্রিয়া দেখে খুশি মমতা। ‘দুয়ারে সরকার’ কর্মসূচির নজিরবিহীন সাফল্য। টুইটে এই সাফল্যের কথা তুলে ধরে আবারও একবার রাজ্যবাসীকে ধন্যবাদ জানালেন মুখ্যমন্ত্রী। যদিও এর মধ্যে অবশ্যই সরকারি স্বাস্থ্যবিমা ‘স্বাস্থ্যসাথী’ প্রকল্পের গ্রাহকের সংখ্যাই সবচেয়ে বেশি।

আরও পড়ুনঃ বর্ধমানে নাড্ডার পাল্টা মিছিল এবার তৃণমূলের।

শুধুমাত্র ‘দুয়ারে সরকার’ শিবির থেকে কোন সরকারি প্রকল্পে কতজন সুবিধা পেলেন, তার বিস্তারিত পরিসংখ্যান তুলে টুইট করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। এভাবে সরকারকে ঘরে ঘরে পরিষেবা করার সুযোগ করে দিয়েছেন রাজ্যবাসী, মনে করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। প্রসঙ্গত, ২০২০ সালের ১ ডিসেম্বর থেকে শুরু হয়েছে রাজ্য সরকারের ‘দুয়ারে সরকার’ কর্মসূচি। জানুয়ারি মাসের ৩১ তারিখ পর্যন্ত দু’মাস ধরে তা চলার কথা।

যদিও বিশিষ্ট মহলের ধারণা, অতি সহজে, হাতের কাছে বিভিন্ন সরকারি প্রকল্পের সুবিধা পাওয়ার জন্য বিধানসভা ভোটের আগে সরকারের এই ক্যাম্প ভোটমুখী এক প্রকল্প বলেই ধারণা রাজনৈতিক মহলের। কন্যাশ্রী, সবুজশ্রী, কৃষকবন্ধু থেকে শুরু করে স্বাস্থ্যসাথী, জয় জহর – একাধিক সরকারি প্রকল্পের সুবিধা পেতে এই শিবিরগুলিতে আবেদনের সঙ্গে সঙ্গেই প্রায় পরিষেবা পাচ্ছেন উপভোক্তারা।

মাত্র দেড় মাসেই অভূতপূর্ব সাফল্য, মাত্র দেড় মাসেখুব কম দিনের মধ্যেই এই প্রকল্প সাফল্যের মুখ দেখেছিল। এবার সাফল্যের সিঁড়ি ধরে আরও খানিকটা উঠল রাজ্য সরকার।এ বিষয়ে মুখ্যমন্ত্রী টুইট করে জানিয়েছেন, ঠিক ৩৯ দিনের মাথায় ‘দুয়ারে সরকার’ ক্যাম্পে সুবিধাভোগীর সংখ্যা ছুঁয়ে ফেলল ২ কোটি। জানা গিয়েছে, এর মধ্যে ৬২ লক্ষ মানুষ শুধুমাত্র ‘স্বাস্থ্যসাথী’র সুবিধা পেয়েছেন। তপসিলি জাতি-উপজাতির শংসাপত্র নিয়ে দীর্ঘ জটিলতা কাটিয়ে প্রায় ৭ লক্ষ শংসাপত্র দেওয়া হয়েছে এই ক্যাম্প থেকে। এছাড়া ৪ লক্ষ চাষি ‘কৃষকবন্ধু’ প্রকল্পের সুবিধা পেয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x