রেশন দুয়ারে পৌঁছে দিতে নারাজ! ডিভিশন বেঞ্চে গেলেন ডিলারদের একাংশ

রেশন দুয়ারে পৌঁছাতে নারাজ! ডিভিশন বেঞ্চে গেলেন ডিলারদের একাংশ
রেশন দুয়ারে পৌঁছাতে নারাজ! ডিভিশন বেঞ্চে গেলেন ডিলারদের একাংশ

নজরবন্দি ব্যুরোঃ রেশন দুয়ারে পৌঁছানোর পরিকল্পনা নিয়েছে রাজ্য সরকার। দুয়ারে সরকারের ব্যাপক সাফল্য দেখেই জিতে ফেরার আগে মমতা ঘোষণা করেছিলেন তৃতীয় বারের জন্য ক্ষমতায় ফিরলেই রাজ্য জুড়ে চালু হবে দুয়ারে রেশন। বাংলার ঘরে ঘরে পৌঁছে যাবে সব সামগ্রী। এই মূহুর্তে মমতা সরকারের পাইলট প্রজেক্ট ‘দুয়ারে রেশন’।

আরও পড়ুনঃ ভোট পরবর্তী হিংসা তদন্তে সাম্মানিক নেবেন না, ১০ লাখ ত্যাগ বিচারপতি চেল্লুর

কিন্তু এই রেশন পৌঁছে দেওয়ার পরিকল্পনা প্রধান অন্তরায় হয়ে দাঁড়িয়েছেন ডিলারদেরই একাংশ। প্রথম থেকেই তাঁদের বক্তব্য ছিল এভাবে রাজ্যের ঘরে ঘরে রেশন পৌঁছানো সম্ভব নয়। রেশন দোকানে এসে মানুষ রেশন নেবেন এটাই নিয়ম। অন্যদিকে সরকার জানিয়েছিল, বাড়ি গিয়ে রেশন দিতে হলে ডিলারদেরই গাড়ির খরচ, প্রচারের খরচ এবং সংরক্ষণের খরচ বহন করতে হবে।

1630874362 free ration

এই বিপুল অর্থ বহন করতে পারবেন না জানিয়ে এ মাসের শুরুর দিকে রাজ্য সরকারের প্রকল্পকে একবারে কোর্টের দরজায় নিয়ে গিয়েছিলেন তাঁরা। যদিও গতকাল ডিলারদের একাংশের দায়ের করা দুয়ারে রেশনের স্থগিতাদেশের আর্জি খারিজ করেছে আদালত।  রাজ্য সরকার বারবার জানিয়েছে এই কাজ সেপ্টেম্বরের জন্য, পরীক্ষা মূলক সময় পর্যন্ত। প্রকল্পের গ্রহণযোগ্যতা এবং বাকি সব দিক বিবেচনা করে পরিবহন এবং অন্যান্য খরচের দায় নেবে রাজ্য সরকার।

রেশন দুয়ারে পৌঁছনোর আগেই বাধা, নিজেদের দাবি নিয়ে আদালতে ডিলাররা। 

1631757002 duare 24

সব শুনে গতকাল আদালতের তরফ থেকে স্থগিতাদেশের আর্জি খারিজ করা হয়েছে। বিচারপতি অমৃতা সিনহা জানিয়েছিলেন করোনা প্রকোপ কালে এখন  চিকিৎসা, ব্যাঙ্কিং ব্যবস্থা, শিক্ষা, বিচার ব্যবস্থা সব ক্ষেত্রেই বোতাম টিপে হচ্ছে বেশিরভাগ কাজ। সেখানে প্রয়োজনীয় দ্রব্য ঘরের দরজায় পৌঁছে দেওয়ায় কোন আইন ভাঙেনি রাজ্য সরকার।

Duare Ration 1 1

গতকাল থেকেই রাজ্য জুড়ে শুরু হয়েছে এই প্রকল্পের ট্র্যায়াল পর্বও। তবে নিজেদের দাবিতে অনড় ডিলারদের একাংশ সিঙ্গেল বেঞ্চের রায়কে চ্যালেং জানিয়ে আজ মামলা করেছে ডিভিশন বেঞ্চে। বিচারপতি সুব্রত তালুকদারের ডিভিশন বেঞ্চে দায়ের হয়েছে মামলা। তাঁদের বক্তব্য এই প্রকল্প শুরু হওয়াতে দিনে দিনে চাপ বাড়ছে ডিলারদের ওপর। কিন্তু সরকার আলাদা কোন সুবিধা দিচ্ছে না তাদের। সরকারি ভাবে রেশন আইনেও কোন বদল ঘটায়নি রাজ্য সরকার। নেই পর্যাপ্ত লোকবল। সব মিল্যে তাঁরা চাইছেন না চালু হোক সরকারের পাইলট প্রজেক্ট। দ্রুত শুনানির আবেদন জানিয়ে আজ ডিভিশন বেঞ্চে গিয়েছেন ডিলারদের একাংশ।

1631751818 duare ration

উল্লেখ্য গতকাল খাদ্য মন্ত্রী রথীন ঘোষ এই প্রকল্প, ট্র্যায়াল পর্ব এবং মামলা সব নিয়ে জানিয়েছিলেন, “বাড়ি বাড়ি যাবেন রেশন ডিলাররা। দু’জন মামলা করেছেন। সরকার তো করেনি। তাই ট্রায়াল হচ্ছেই। মূল অংশ শুরু হতে দেরি আছে। তার মধ্যে ডিলারদের সঙ্গে তাঁদের দাবি নিয়ে আলোচনা চলবে। আমরা আপাতত দেখে নিতে চাই পরিস্থিতি কেমন।”

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here