কোভিড মুক্তির ৯০ দিন পর মিলবে টিকা, ধোঁয়াশা স্পষ্ট করে নির্দেশ কেন্দ্রের

কোভিড মুক্তির ৯০ দিন পর মিলবে টিকা, ধোঁয়াশা স্পষ্ট করে নির্দেশ কেন্দ্রের
কোভিড মুক্তির ৯০ দিন পর মিলবে টিকা, ধোঁয়াশা স্পষ্ট করে নির্দেশ কেন্দ্রের

নজরবন্দি ব্যুরোঃ কোভিড মুক্তির ৯০ দিন পর মিলবে টিকা, কেন্দ্র সরকারের তরফ থেকে স্পষ্ট বার্তা দেওয়া হয়েছে দেশবাসীকে। করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের কাছে মুখ থুবড়ে পরে আছে গোটা দেশ। অক্সিজেন, বেডের আকাল গত কয়েক সপ্তাহের তুলনায় ধীরে ধীরে কিছুটা কমলেও এখনো দেশ জুড়ে ব্যাপক সংকট টিকার। টিকার অভাবে একাধিক জায়গায় বন্ধ হচ্ছে টিকাকরণ।

আরও পড়ুনঃ নারদ-নাটকের মধ্যেই বাংলায় রাষ্ট্রপতি শাসন জারির আবেদন, মামলা দায়ের সুপ্রিম কোর্টে

এই অবস্থায় কোভিড থেকে সুস্থ হওয়া রোগীদের টিকাকরণের বিষয়ে স্পষ্ট নির্দেশ দেওয়া হয়েছে কেন্দ্রের তরফ থেকে। এর আগে কোভিশিল্ড টিকার দুটি ডোজের মধ্যবর্তী সময়সীমা পরিবর্তন করেছিল কেন্দ্র। প্রথমে কোভিশিল্ডের দুটি ডোজের মাঝে ব্যবধান রাখতে বলা হয়েছিলো ৬-৮ সপ্তাহ। তার পরেই মাঝের ওই সময়সীমা বাড়িয়ে করা হয়েছে  ১২-১৬ সপ্তাহ। এবার কোভিড থেকে সুস্থ হওয়াদের টিকাকরণের সময়সীমা বেঁধে দিল কেন্দ্র।

সুত্রের খবর  নিতী আয়োগের ড. ভি.কে.পালের নেতৃত্বে ‘ন্যাশনাল এক্সপার্ট গ্রুপ অন ভ্যাকসিন অ্যাডমিনিস্ট্রেশন ফর কোভি়ড-১৯ করোনার টিকাকরণের এই নতুন নিয়ম জারি করেছে। তাতে বলা হয়েছে করোনা থেকে সুস্থ হলে কোন ব্যক্তি ৩ মাস অর্থাৎ ৯০ দিন পর টিকা নিতে পারবে। কোন ব্যক্তি টিকার প্রথম ডোজ নেওয়ার পরে কোভিড পজেটিভ হলে সুস্থ হয়ার পর তাঁকেও অপেক্ষা করতে হবে পাক্কা ৯০ দিন।

কোভিড মুক্তির ৯০ দিন পর মিলবে টিকা, তবে বারেবার টিকার এই দিন-ক্ষণ বদলকে টিকার সংকট ঢাকার কারন বলেই মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল। এর আগের দেশে টিকা সংকটের কারণে কেন্দ্রকে চিঠি দিয়েছে রাজ্যগুলি। বাংলার মুখ্যমন্ত্রীও  দাবী করেছিলেন প্রয়োজনে টিকা কারখানার জন্য বাংলায় জমি দিতেও রাজি তিনি। একাধিক জায়গায় করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলা নিয়ে মুখ পুড়েছে কেন্দ্রের। তিন মাসে এই নিয়ে দ্বিতিয় বার সমসীমা বদল হয়েছে টিকাকরণের। বিরোধী দল্গুলির মতে দেশে টিকা নেই, আর সেই বিষয়কে চাপা দিতেই বারবার এই ধরণের সময়ের পরিবর্তন করছে কেন্দ্র সরকার।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here