করোনাকে জয় করেও জীবনযুদ্ধে হেরে গেলেন কংগ্রেস সাংসদ রাজীব সতভ!

করোনাকে জয় করেও জীবনযুদ্ধে হেরে গেলেন কংগ্রেস সাংসদ রাজীব সতভ!
করোনাকে জয় করেও জীবনযুদ্ধে হেরে গেলেন কংগ্রেস সাংসদ রাজীব সতভ!

নজরবন্দি ব্যুরোঃ করোনাকে জয় করেও জীবনযুদ্ধে হেরে গেলেন কংগ্রেস সাংসদ রাজীব সতভ! ফের করোনা প্রাণ কেড়ে নিল এক প্রথম সারির রাজনীতিবিদের। তিনি সিনিয়র কংগ্রেস নেতা ও সাংসদ রাজীব সতভ। করোনা আক্রান্ত হলেও পরে করোনা মুক্ত হন তিনি। তবে অসুস্থ থাকার পর অবশেষে প্রাণ গেল তাঁর। পুনের জাহাঙ্গির হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন রাজীব সতভ।

আরও পড়ুনঃ করোনা আবহেই লাগামছাড়া জ্বালানী তেল, মুম্বাইয়ে সেঞ্চুরি হাঁকানোর মুখে পেট্রোল।

সেই হাসপাতালের তরফে জানানো হয়েছে, ‘গত ৯ মে, ২০২১-এ রাজীব সতভের RT-PCR রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছিল। যদিও তারপরেও তাঁর অসুস্থতা ছিল এবং তিনি নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হয়ে গিয়েছিলেন। মাল্টি অর্গান অকেজো হয়েই ১৬ মে ভোর ৪.৫৮ মিনিটে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।’ মহারাষ্ট্রের স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, ৪৬ বছরের নেতা রাজীব সতভ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েই অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন। তাঁর মৃত্যুতে গভীর ভাবে শোকাহত রাজনৈতিক মহল। কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী এদিন ট্যুইট করে রাজীবের মৃত্যুতে শোকপ্রকাশ করে লেখেন ‘আমাদের সবার বড় ক্ষতি’ বলে উল্লেখ করে রাজীবকে নিজের ‘বন্ধু’ বলেছেন রাহুল।

রাজীব সতভের মৃত্যুতে ট্যুইট করে শোকজ্ঞাপন করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীও। তিনি ট্যুইটে লিখেছেন, “আমার সংসদের বন্ধুর মৃত্যুর খবরে শোকাহত, শ্রী রাজীব সতভজি একজন বিচক্ষণ আগামী দিনের নেতা ছিলেন। তাঁর পরিবার, বন্ধু ও সমর্থকদের সমবেদনা জানাই। ওম শান্তি।” কংগ্রেসের তরফেও বিবৃতি জারি করে রাজীবের মৃত্যুর শোকপ্রকাশ করা হয়েছে। প্রসঙ্গত রাজীবের পরিবারে স্ত্রী ও তাঁর ১১ ও ১৬ বছরের দুই সন্তান রয়েছে। মহারাষ্ট্রের বাসিন্দা রাজীব ছিলেন গুজরাতের কংগ্রেস ইন-চার্জ ছিলেন তিনি।

করোনাকে জয় করেও জীবনযুদ্ধে হেরে গেলেন কংগ্রেস সাংসদ রাজীব সতভ! গত বিধানসভা নির্বাচনে গুজরাতে ভালো ফল করেছে কংগ্রেস। জাতীয় কংগ্রেসের নেতা কে সি ভেনুগোপালও রাজীব সতভের মৃত্যুতে শোকপ্রকাশ করেছেন। শোক জানিয়েছেন, রণদীপ সুরজেওয়ালা ও জয়রাম রমেশও।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here