JNU-এর পাঠক্রমে ‘সাম্প্রদায়িকতা’, কেন্দ্রীয় শিক্ষামন্ত্রীকে চিঠি সিপিআই সাংসদের

JNU-এর পাঠক্রমে 'সাম্প্রদায়িকতা', কেন্দ্রীয় শিক্ষামন্ত্রীকে চিঠি সিপিআই সাংসদের
JNU-এর পাঠক্রমে 'সাম্প্রদায়িকতা', কেন্দ্রীয় শিক্ষামন্ত্রীকে চিঠি সিপিআই সাংসদের

নজরবন্দি ব্যুরোঃ JNU-এর পাঠক্রমে ‘সাম্প্রদায়িকতা’, কেন্দ্রীয় শিক্ষামন্ত্রীকে চিঠি সিপিআই সাংসদের। এবার জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ের সদ্য সংশোধিত পাঠ্যক্রমে ‘জেহাদি জঙ্গিবাদের’ নামে এক নতুন বিষয় পাঠ্যসূচিতে জায়গা করে নিতে চলেছে। সেই বিষয় আসলে ‘সাম্প্রদায়িক’, কেন্দ্রীয় শিক্ষামন্ত্রী দেওয়া চিঠিতে এমনটাই অভিযোগ জানালেন সিপিআই সাংসদ বিনয় ভিসওয়ামের।

আরও পড়ুনঃ ফের করোনার সংক্রমণ উর্ধমুখী, সংক্রমনের হার বেশি মহারাষ্ট্র-কেরলে

তাঁর অভিযোগ, “জেএনইউ-এর ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের পাঠ্যসূচিতে যে নব্য বিষয়টি পঠন-পাঠনের জন্য বিবেচিত হয়েছে তা শুধু সাম্প্রদায়িক নয়, ভূ-রাজনৈতিক সম্পর্ককে বিষিয়ে দেওয়ার চেষ্টাও।” তিনি জানিয়েছেন, পড়ুয়াদের সামনে একটা বড়ো অসত্যকেই তুলে দেওয়ার চেষ্টা করছে কেন্দ্রীয় শিক্ষামন্ত্রক। শিক্ষামন্ত্রীকে লেখা চিঠিতে তিনি জানান, “নিজের রাজনৈতিক মতবাদ চাপিয়ে দেওয়ার জন্য পাঠ্যক্রমকে এ ভাবে ব্যবহার করার এমন অসততা নজিরবিহীন।”

JNU-এর পাঠক্রমে ‘সাম্প্রদায়িকতা’, প্রতিবাদ SFI এরও।

JNU-এর পাঠক্রমে 'সাম্প্রদায়িকতা', প্রতিবাদ SFI এরও।
JNU-এর পাঠক্রমে ‘সাম্প্রদায়িকতা’, প্রতিবাদ SFI এরও।
JNU-এর পাঠক্রমে ‘সাম্প্রদায়িকতা’, পাঠ্যক্রমে এই গৈরিকীকরণের ছায়া পড়েছিল বেশ কিছু দিন আগেই। জেএনইউ সূত্রে জানা গিয়েছে, ‘জেহাদি টেররিজ়ম’ বা জেহাদি ‌আতঙ্কবাদের নামে বিশ্ববিদ্যালয়ের স্কুল অফ ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে যে পাঠ্যসূচি চালু হতে চলেছে, সেখানে ধর্মীয় মৌলবাদের আড়ালে জঙ্গি কার্যকলাপের জন্য যেমন দায়ি করা হয়েছে শুধুই ইসলামি-রাষ্ট্রগুলিকে। তেমনই রাষ্ট্রীয় পৃষ্টপোষকতায় আতঙ্ক ছড়ানোর জন্য আঙুল তোলা হয়েছে শুধুই বামপন্থীদের দিকে।

শিক্ষাবিদদের অনেকেই মনে করছেন, এ শুধু শিক্ষামন্ত্রকের দায়িত্বজ্ঞানহীনতার পরিচয় নয়, একই সঙ্গে তা ইতিহাসকে বিকৃতও করা হচ্ছে। JNU-এর পাঠক্রমে ‘সাম্প্রদায়িকতা’, কেন্দ্রীয় শিক্ষামন্ত্রীকে চিঠি সিপিআই সাংসদের। পাশাপাশি এই ঘটনার নিন্দা করেছে এসএফআই। ভারতের ছাত্র ফেডারেশনের সর্বভারতীয় সাধারন সম্পাদক ময়ূখ বিশ্বাস এ বিষয়ে জানিয়েছেন, “আরএসএস-এর সন্ত্রাসের ক্ষত জেএনইউয়ের স্মৃতিতে উজ্জ্বল। কেন্দ্রের প্রধান শত্রু যে কমিউনিস্ট এবং সংখ্যালঘুরা তা ফের প্রমাণিত।”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here