তৃণমূলের তোলাবাজরা পদ্ম প্রতীকে প্রার্থী! আরও ৯ আসনে প্রার্থী দিচ্ছে আদি বিজেপি।

তৃণমূলের তোলাবাজরা পদ্ম প্রতীকে প্রার্থী! আরও ৯ আসনে প্রার্থী দিচ্ছে আদি বিজেপি।
তৃণমূলের তোলাবাজরা পদ্ম প্রতীকে প্রার্থী! আরও ৯ আসনে প্রার্থী দিচ্ছে আদি বিজেপি।

নজরবন্দি ব্যুরো: তৃণমূলের তোলাবাজরা পদ্ম প্রতীকে প্রার্থী! এই অভিযোগ সামনে রেখে পদত্যাগের হিড়িক অব্যাহত। প্রার্থী বদলের দাবিতে বেশ কয়েকদিন ধরে তুমুল আন্দোলন চালাচ্ছেন বিজেপি কর্মীরা। বিক্ষোভের তীব্রতা যেন ক্রমশ চরম আকার নিচ্ছে বিজেপি কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে। প্রার্থী ঘোষণার পর জেলায় জেলায় অধিকাংশ কেন্দ্রে অসন্তোষ শুরু হয়ে যায়। ভাবা হচ্ছিল দিল্লীতে শাহি তলবের পর হয়তো রাজ্য নেতাদের হস্তক্ষেপে সেই বিক্ষোভ কমবে। কিন্তু তাতো হয়নি বরং বেড়েছে বিক্ষোভের উত্তাপ। সেই উত্তাপের আঁচ গিয়ে পড়েছে একেবারে বিজেপির সদর দপ্তরে।

আরও পড়ুনঃ প্রার্থী নিয়ে অসন্তোষ, বিজেপি নেতার বাড়ি ভাঙচুর সিঙ্গুরে।

বিভিন্ন জেলা জুড়ে বিক্ষোভ আন্দোলনের পাশাপাশি দল থেকে পদত্যাগ করার হিড়িকও দেখা গিয়েছে। কোথাও আবার দলের ঘোষিত প্রার্থীর বিরুদ্ধে অনশনে বসারও হুঁশিয়ারি দিয়েছেন দলীয় কর্মীরা। সব মিলিয়ে যথেষ্ট অস্বস্তিতে পড়েছে বিজেপির জেলা নেতৃত্ব। গত লোকসভা ভোটে নদীয়া জেলায় বিপুল ভোটে জয়ী হয়েছিল বিজেপি। সেই নদীয়া জেলাতেই একদিনে ১৭ জন বিজেপি নেতা পদত্যাগ করেন। আদি এবং নব্য বিজেপির দ্বন্দ্ব ছিল অনেকদিন ধরে। এবার প্রার্থী তালিকা প্রকাশ হতেই দলীয় কোন্দল আরও প্রকাশ্যে চলে এল বিজেপির। মূলত তৃণমূলের বিরুদ্ধে লড়াই করা নেতারা মানতে পারছেন না সদ্য তৃণমূল থেকে আগতদের টিকিট দেওয়াকে।

তৃণমূলের তোলাবাজরা পদ্ম প্রতীকে প্রার্থী! কিন্তু মানতে না পারলেও উপায় নেই। বিজেপির ঘোষিত প্রার্থী তালিকা দেখলেই বোঝা যাবে সেখানে স্থান পেয়েছেন সদ্য দলত্যাগী একাধিক তৃণমূল নেতা। কয়েকটি আসন বাদে সব কেন্দ্রের প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করে দেওয়া হয়েছে। প্রার্থী বদল করার তেমন নাম গন্ধ পাওয়া যাচ্ছেনা। এদিন বিকেলে খণ্ডঘোষের কাঁটাপুকুর এলাকায় বাঁকুড়া রোড অবরোধ করেন বিজেপি কর্মীরা। প্রার্থী বদলের দাবিতে সোচ্চার হন তাঁরা। কিন্তু দলীয় নেতৃত্ব সেসবে পাত্তা না দেওয়ায় দলীয় প্রার্থীর বিরুদ্ধে নির্দল প্রার্থী দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিল আদি বিজেপি। মুর্শিদাবাদ থেকে নদিয়া, হুগলি থেকে উত্তর ২৪ পরগনা। তারপর এবার বর্ধমানের ৯টি বিধানসভা কেন্দ্রে নির্দল হিসেবে লড়াইয়ের প্রস্তুতি শুরু করল আদি বিজেপির নেতারা।

আদি বিজেপির তরফে জানানো হয়েছে, দুর্নীতিগ্রস্ত, চরিত্রে কলঙ্কের দাগ রয়েছে সেই সব লোকজন টিকিট পেয়েছে। তাহলে এতদিন ধরে দল করে কি লাভ হল! তৃণমূলের বিরুদ্ধে লড়াই অথচ তৃণমূল ছেড়ে এলেই ভোটের টিকিট! এভাবে চলতে পারেনা। তাই বিজেপির আদি কর্মীরা সিদ্ধান্ত নিয়েছেন নির্দল প্রার্থী হিসেবে পূর্ব বর্ধমানের ৯ টি কেন্দ্রে লড়বেন এবং জিতে দেখিয়ে দেবেন দলের ভোট ম্যানেজারদের।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here