ভোট শেষ এবার উদ্বোধন করবেন না প্রধানমন্ত্রী, দুর্গাপুজোর পক্ষে সুকান্ত, রাজি নন দিলীপ।

ভোট শেষ এবার উদ্বোধন করবেন না প্রধানমন্ত্রী, দুর্গাপুজোর পক্ষে সুকান্ত, রাজি নন দিলীপ।
ভোট শেষ এবার উদ্বোধন করবেন না প্রধানমন্ত্রী, দুর্গাপুজোর পক্ষে সুকান্ত, রাজি নন দিলীপ।

নজরবন্দি ব্যুরোঃ দুর্গাপুজোয় জনসংযোগের গুরুত্ব বুঝে ২০২১ সালের বিধানসভা নির্বাচনের আগে শেষ পুজোয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে ময়দানে নামিয়েছিল বিজেপি। গতবছর অর্থাৎ ২০২০ সালে সল্টলেকের পূর্বাঞ্চলীয় সাংস্কৃতিক কেন্দ্রে (ইজেডসিসি) দুর্গাপুজোর আয়োজন করেছিলেন বিজেপির নেতা-কর্মীরা। ধুতি-পাঞ্জাবি পরে একেবারে বাঙালি বেশেই দুর্গাপুজোর ভারচুয়াল উদ্বোধন করেন নরেন্দ্র মোদী। কিন্তু মিটেছে বিধানসভা নির্বাচন, শোনা যাচ্ছে, ভোট শেষ এবার উদ্বোধন করবেন না প্রধানমন্ত্রী!

আরও পড়ুনঃ রাত পোহালেই মহালয়া, কেন ও কীভাবে করবেন তর্পণ? পিতৃপক্ষ আসলে কি?

বিধানসভা নির্বাচনে মুখ থুবড়ে পড়েছে ভারতীয় জনতা পার্টি। রাজ্যে ক্ষমতায় আসাতো দূর অস্ত, ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনে জেতা ১৮ টি আসনের ৯টি আসনেই পরাজয় হয়েছে বিধানসভা ভিত্তিক ফলাফলে। সর্বশেষ, রাজ্যের ৩ টি উপনির্বাচনে ভরাডুবি হয়েছে গেরুয়া শিবিরের। তারপর দল ছাড়ছেন একের পর এক নেতা, সাংসদ, বিধায়ক। এই পরিস্থিতিতে দুর্গাপুজো করতেই চায়নি বঙ্গ বিজেপি। কিন্তু পুজো হচ্ছে শেষ পর্যন্ত।

বিজেপি সূত্রে খবর, মূলত সাংসদ তথা বিজেপি রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদারের উদ্যোগেই দুর্গাপুজো হবে এই বছর। তবে তাঁর মধ্যে থাকবে না গতবারের জৌলুস। এবার জাঁকজমক করে না হলেও ছোট করে হবে পুজো। ইতিমধ্যেই পুজো প্রস্তুতি শুরু হয়েছে বিজেপির অন্দরে। গতকাল হয়ে গিয়েছে দুর্গাপুজোর বৈঠক। তবে এবারের পুজো নিয়ে একেবারেই নাকি রাজি নন দিলীপ ঘোষ। নিতান্ত সুকান্ত মজুমদারের চাপে পড়েই হবে দুর্গাপুজো।

ভোট শেষ এবার উদ্বোধন করবেন না প্রধানমন্ত্রী, দুর্গাপুজোর পক্ষে সুকান্ত, রাজি নন দিলীপ।

ভোট শেষ এবার উদ্বোধন করবেন না প্রধানমন্ত্রী, দুর্গাপুজোর পক্ষে সুকান্ত, রাজি নন দিলীপ।

গতবার বিজেপি–র মহিলা মোর্চা দ্বারা আপাত ভাবে এই পুজো পরিচালিত হলেও পুজোর মূল দুই মাথা ছিলেন  কৈলাস বিজয়বর্গীয় ও মুকুল রায়। অথচ সেবার দিলীপ ঘোষকে পুজোর সঙ্গে জড়িত কোনও কর্মকাণ্ডে রাখা হয়নি বলে অভিযোগ। আর এখন মুকুল চলে গিয়েছেন তৃণমূলে, কৈলাশের ডানা ছেটে দেওয়া হয়েছে। শোনা যাচ্ছে ভোট শেষ এবার উদ্বোধন করবেন না প্রধানমন্ত্রী, সব মিলিয়ে পুজোতে কোনরকম আগ্রহ ছিলনা দিলীপের। নিয়ম অনুযায়ী একবার পুজোর সংকল্প করা হলে তিনবার পুজো করতেই হয়। তাই নেহাত বাধ্য হয়ে…

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here