জাতীয় স্তরেও ভারতী ভরসা, গেরুয়া শিবিরে গুরুত্ব বাড়ল প্রাক্তন আইপিএসের

জাতীয় স্তরেও ভারতী ভরসা, গেরুয়া শিবিরে গুরুত্ব বাড়ল প্রাক্তন আইপিএসের
জাতীয় স্তরেও ভারতী ভরসা, গেরুয়া শিবিরে গুরুত্ব বাড়ল প্রাক্তন আইপিএসের

নজরবন্দি ব্যুরোঃ পশ্চিমবঙ্গ থেকে মাত্র ৭৭ টি আসন পেয়ে আটকে যায় বিজেপির রথ। তবুও এত সহজে হাল ছাড়তে নারাজ দীনদয়াল উপাধ্যায় মার্গের নেতারা। তাই বাংলা থেকে হেভিওয়েট নেতাদের জাতীয় স্তরে গুরুত্ব দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিল কেন্দ্রীয় কমিটি। রবিবার প্রাক্তন আইপিএস অফিসার ভারতী ঘোষকে দলের মুখপাত্র পদে ঘোষণা করল বিজেপি।

আরও পড়ুনঃ ‘তৃণমূলের জন্য আরও ভাল গান বানাব’, এই তৃণমূল আর নয়ের পাল্টা দিলেন বাবুল

রবিবার একটি প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডার তরফে এই ঘোষণাকে মান্যতা দেওয়া হয়েছে। সেই পদে যুক্ত হয়েছেন শাহজাদ পুনাওয়ালা। দিল্লির নেতাদের সিদ্ধান্তে রীতিমতো সাড়া পড়ে গিয়েছে বঙ্গ বিজেপির অন্দরে।

২০১৯ সালে নির্বাচনে বিজেপিতে যোগদান করেন ভারতী ঘোষ। মুখ্যমন্ত্রীকে জঙ্গলমহলের ‘মা’ আখ্যা দেওয়া ভারতী ঘোষের বিজেপিতে যোগদান চমকে দিয়েছিল সকলকে। লোকসভা নির্বাচনে অভিনেতা দেবের বিরুদ্ধে পশ্চিম মেদিনিপুরের ঘাটাল আসনটিতে লড়াই করেছিলেন তিনি। কিন্তু সেবার পরাজয় হয় তাঁর। এরপর বিধানসভা নির্বাচনে ডেবরা আসন থেকে প্রার্থী করে দল। কিন্তু প্রতিপক্ষ আরও এক অফিসার হুমায়ুন কবিরের কাছে পরাজিত হন।

জাতীয় স্তরেও ভারতী ভরসা, মমতাকে রুখতে ট্রাম্প কার্ড 

জাতীয় স্তরেও ভারতী ভরসা, গেরুয়া শিবিরে গুরুত্ব বাড়ল প্রাক্তন আইপিএসের
জাতীয় স্তরেও ভারতী ভরসা, গেরুয়া শিবিরে গুরুত্ব বাড়ল প্রাক্তন আইপিএসের

দুই বার পরাজিত হলেও লড়াকু নেত্রীর ওপর আস্থা রাখতে চাইছে অমিত শাহ, জেপি নাড্ডারা। তাই সর্বভারতীয় পর্যায়ে বিশেষ গুরুত্ব দিয়ে ফের চমক আনলেন গেরুয়া শিবিরের নেতারা। রাজনৈতিক মহলের ধারণা, ২৪ নির্বাচনে দেশের অন্যতম মোদি বিরোধী লড়াইয়ের মুখ হিসাবে উঠে আসছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এমত অবস্থায় তৃণমূলকে রুখতেই জাতীয় স্তরেও ভারতী ভরসা।