বাংলার মাটিতেই বাংলা সিনেমা আক্রান্ত, মন্ত্রীর দরবারে স্মারকলিপি বাংলা পক্ষর।

বাংলার মাটিতেই বাংলা সিনেমা আক্রান্ত, মন্ত্রীর দরবারে স্মারকলিপি বাংলা পক্ষর।
Bangla Pakkha Activity

নজরবন্দি ব্যুরোঃ বাংলার মাটিতেই বাংলা সিনেমা আক্রান্ত। হিন্দির দাপটে হল পায় না বাংলা সিনেমা, পেলেও প্রাইম টাইমে পায় না। একের পর সিঙ্গল স্ক্রিন সিনেমা হল বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। আজ বিধানসভা ভবনে তথ্য ও সংস্কৃতি দপ্তরের প্রতিমন্ত্রী ইন্দ্রনীল সেনের সাথে বাংলা সিনেমার স্বার্থে দীর্ঘক্ষণ আলোচনা করে এবং স্মারকলিপি জমা দেন বাংলা পক্ষর প্রতিনিধিরা।

আরও পড়ুনঃ নবমী পর্যন্ত জেল হেফাজতে কেষ্ট, ফের প্রভাবশালী তত্ত্বে খারিজ জামিন!

বাংলায় ডিজিটাল প্রোজেকশন (VPF) চার্জ এত বেশি কেন? সমস্ত বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়। আমরা সরকারের হস্তক্ষেপ দাবি করলাম। বাংলা পক্ষর তরফে উপস্থিত ছিলেন বাংলা পক্ষর সাংগঠনিক সম্পাদক কৌশিক মাইতি ও শীর্ষ পরিষদ সদস্য মনন মন্ডল।

বাংলার মাটিতেই বাংলা সিনেমা আক্রান্ত, মন্ত্রীর দরবারে স্মারকলিপি বাংলা পক্ষর।

Bangla Pakkha 3

bangla pakkha 2

বাংলা সিনেমার ভালোর স্বার্থে বাংলার সরকারের কাছে বাংলা পক্ষর দাবি:-
১. বাংলার সমস্ত সিনেমা হলে প্রাইম টাইম সহ কমপক্ষে ৫০% স্লটে বাংলা সিনেমা দেখানো বাধ্যতামূলক করুক বাংলার সরকার।

২. Qube, UFO, UMW বাংলায় বাংলা সিনেমার জন্য VPF Charge শো প্রতি ১০০০ টাকা নেয়, হিন্দির রেট শো প্রতি ৫০০ টাকা, তামিল- তেলগু সিনেমার রেট শো প্রতি ৩০০ টাকা এবং ভোজপুরি সিনেমার রেট শো প্রতি ২৪০ টাকা। পুরো ভারতের মধ্যে বাংলায় বাংলা সিনেমার জন্য VPF Charge সবচেয়ে বেশি নেয়। এটা অন্যায়। তাই বাংলায় বাংলা সিনেমার জন্য VPF Charge সর্বোচ্চ ৩০০ টাকা প্রতি শো- এই রেট ধার্য্য করে দিক বাংলার সরকার। নাহলে, QUBE, UFO, UMW র জায়গায় সরকার ডিজিটাল প্রোজেকশন সিস্টেমটা হাতে নিক যাতে তামিল-তেলগু-মারাঠি সিনেমার মতো বাংলা সিনেমার জন্য VPF Charge ৩০০ টাকা প্রতি শো হয়।

বাংলার মাটিতেই বাংলা সিনেমা আক্রান্ত, মন্ত্রীর দরবারে স্মারকলিপি বাংলা পক্ষর।
বাংলার মাটিতেই বাংলা সিনেমা আক্রান্ত, মন্ত্রীর দরবারে স্মারকলিপি বাংলা পক্ষর।

৩. সমস্ত সিঙ্গল স্ক্রিন সিনেমা হলে ইন্ডাস্ট্রিয়াল রেটে বিদ্যুতের দাম নিতে হবে। এবং সিনেমা হল গুলির জন্য পৌরসভার ট্যাক্স মুকুব করতে হবে।
৪. সিঙ্গল স্ক্রিন হল গুলোর পরিকাঠামো ঠিক করতে MSME থেকে সরকার লোন দিক।

৫. গ্রাম ও মফস্বলের বাঙালিকে হল মুখী করতে সিস্টেমেটিক প্রচার ও হল গুলোর আধুনিকীকরণ জরুরী। প্রতিটা জেলায় কমপক্ষে একটা সরকারি হল তৈরি প্রয়োজন