দুর্বল অসমের বিরুদ্ধে হেরে নক আউটের রাস্তা কঠিন করল বাংলা।

দুর্বল অসমের বিরুদ্ধে হেরে নক আউটের রাস্তা কঠিন করল বাংলা।

নজরবন্দি ব্যুরোঃ দুর্বল অসমের বিরুদ্ধে হেরে নক আউটের রাস্তা কঠিন করল বাংলা। জয়ের হ্যাট্রিক থেকে দুর্বল অসমের বিরুদ্ধে জঘন্য হার। মুস্তাক আলি ট্রফিতে নিজেদের নক আউটের পথ নিজেরাই কঠিন করে ফেলল বাংলা। পরিস্থিতি এমন দাঁড়িয়েছে শেষ ম্যাচে তামিলনাড়ুর বিরুদ্ধে জিততেই হবে বাংলাকে। প্রথম স্থান খুইয়ে গ্রুপে দ্বিতীয় স্থানে নেমে গেছে বাংলা। যেহেতু প্রথম দুই দলই যাবে তাই শেষ ম্যাচ জিততেই হবে বাংলাকে। টসে জিতে বোলিং করার সিদ্ধান্ত নেন অধিনায়ক অনুষ্টুপ।

আরও পড়ুনঃ চোট সমস্যায় জর্জরিত টিম ইন্ডিয়া, খোঁজ নিলেন প্রেসিডেন্ট সৌরভ।

ঈশান পোড়েল ৩৪ রানে ২ উইকেট নিলেও বাকিরা দাগ কাটতে ব্যর্থ। সেই সুযোগে বিস্ফোরক ইনিংস খেললেন বিপক্ষের অধিনায়ক ও আইপিএলের উদীয়মান তারকা রিয়ান পরাগ। ৫৪ বলে ৭৭ রানে অপরাজিত থাকলেন রাজস্থান রয়্যালসের এই মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান। ৫টা বাউন্ডারি ও ৫টা ওভার বাউন্ডারি দিয়ে তাঁর ইনিংস সাজানো ছিল। ডেনিস দাস করেন ৩৪ রান। ফলে ৫ উইকেটে ১৫৭ রান তোলে অসম।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালই করেন দুই ওপেনার শ্রীবত্‍স গোস্বামী ও বিবেক সিংহ। দ্রুত ৩৭ রান যোগ করেন তাঁরা। শ্রীবত্‍স ১৬ রানে ফিরে যাওয়ার পর বিবেক (২১) দ্রুত সাজঘরে ফেরেন। যদিও তৃতীয় উইকেটে ৬৪ রান তুলে বিপক্ষের উপর চাপ বাড়াতে থাকেন দুই অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান মনোজ ও অনুষ্টুপ। কিন্তু মনোজ ৩৩ রানে ফিরতেই মিডল অর্ডারে যেন ধস নামল।

দুর্বল অসমের বিরুদ্ধে হেরে নক আউটের রাস্তা কঠিন করল বাংলা। ৩ উইকেটে ১০৩ রান থেকে মুহূর্তের মধ্যে স্কোরবোর্ডে দেখা গেল ১৪২ রানে ৮ উইকেট! মাত্র ৩৯ রানে ৬ উইকেট খুইয়ে ১৩ রানে শেষ হারে বাংলা। ফের বেড়িয়ে গেল দলের মিডল অর্ডারের হাড়কঙ্কাল। অধিনায়কের ৪৮ কোন কাজে এল না। ম্যাচের পর অনুষ্টুপ বলেন ”একটা দিন খারাপ গিয়েছে। সব বিভাগেই আমরা ব্যর্থ হয়েছি। তবে তামিলনাড়ুর বিরুদ্ধে আমরা ঠিক কামব্যাক করব। কারণ, নক-আউটে যেতেই হবে।” অধিনায়কের কথামত দলের কামব্যাকের অপেক্ষায় গোটা বাংলা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x