Anubrata Mondal: নবমী পর্যন্ত জেল হেফাজতে কেষ্ট, ফের প্রভাবশালী তত্ত্বে খারিজ জামিন!

নবমী পর্যন্ত জেল হেফাজতে কেষ্ট, ফের প্রভাবশালী তত্ত্বে খারিজ জামিন!
Anubrata Mondal geting 14 days jail coustody

নজরবন্দি ব্যুরোঃ ফের জেল হেফাজতে বীরভূমের তৃণমূল সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল। বুধবার গরু পাচার মামলায় অনুব্রতকে আসানসোলের বিশেষ সিবিআই আদালতে তোলা হয়েছিল। সিবিআই এ দিন দাবি করেন, অনুব্রত এতটাই প্রভাবশালী যে জেলে বসেও প্রভাব খাটাতে সক্ষম তিনি। অনুব্রতর আইনজীবী জামিনের আর্জি জানালেও, তা ধোপে টেকেনি। ফলে পুজোর আগে জেল থেকে বেরনোর সম্ভাবনা নেই কেষ্ট মণ্ডলের।

আরও পড়ুনঃ ২৮ সেপ্টেম্বরের মধ্যে ৯২৩ জনকে চাকরির নির্দেশ বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়ের।

৫ অক্টোবর ও ১৯ অক্টোবর আসানসোল সিজিএম আদালতে এই মামলার শুনানি হবে। ২৯ অক্টোবর সিবিআই আদালত খোলার পর ফের শুনানি হবে। পুজার জন্য আদালত ছুটি থাকবে। এ দিন আদালতে সিবিআই-এর আইনজীবী জানিয়েছেন, দুটি এনজিও-র সঙ্গে অনুব্রতর যোগ রয়েছে। খোঁজ মিলেছে  প্রায় ১৯ টি নতুন সম্পত্তির। প্রচুর নগদ টাকাও পাওয়া গিয়েছে।

anubrata mondal ians 1135083 1660237769

এ দিন ফের অনুব্রতকে প্রভাবশালী বলে উল্লেখ করে সিবিআই দাবি করে, জামিন দেওয়া হলে তদন্ত প্রভাবিত হবে। অন্যদিকে অনুব্রতর আইনজীবী আদালতে বলেন, অনুব্রত সদ্য স্ত্রীকে হারিয়েছেন, তাই মানবিকভাবে বিচার করে জামিন দেওয়া উচিত। তাঁর দাবি, তাঁর মক্কেল অসুস্থ, ৬৫-র বেশি বয়স। খাওয়া দাওয়া টয়লেটও স্বাভাবিক নয় বলে জানিয়েছেন তিনি।

নবমী পর্যন্ত জেল হেফাজতে কেষ্ট, ফের ‘প্রভাবশালী তত্ত্বে’ খারিজ জামিন!
নবমী পর্যন্ত জেল হেফাজতে কেষ্ট, ফের ‘প্রভাবশালী তত্ত্বে’ খারিজ জামিন!

অনুব্রতর আইনজীবীর দাবি, এই মামলায় ইতিমধ্যে অনেককেই জামিন দেওয়া হয়েছে। বিকাশ মিশ্র, আবদুল লতিফের কথা উল্লেখ করা হয়েছে। যাঁরা পশুপাখির হাট চালাতেন বলে দাবি, তাঁদের গ্রেফতার করা হল না কেন, তা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন অনুব্রত মণ্ডলের আইনজীবী।

নবমী পর্যন্ত জেল হেফাজতে কেষ্ট, ফের প্রভাবশালী তত্ত্বে খারিজ জামিন!

1078342 anubrata mondal 2

উল্লেখ্য, ইতিমধ্যেই এই মামলার তদন্তে বোলপুরের বেশ কিছু জায়গায় তল্লাশি চালিয়েছেন সিবিআই আধিকারিকরা। একাধিক জায়গা থেকে জমি দখলের অভিযোগ উঠেছে। মঙ্গলবারই বোলপুরে ভারত সেবাশ্রম সঙ্ঘ থেকে বেশ কিছু তথ্য সংগ্রহ করে সিবিআই। গরু পাচারের টাকা কী ভাবে খরচ হয়েছিল, তা জানতেই তৎপর কেন্দ্রীয় সংস্থা।