হাত জোড় করে সকলকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি, ভক্তদের বার্তা দিলেন শাহেনসা।

হাত জোড় করে সকলকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি, ভক্তদের বার্তা দিলেন শাহেনসা।

নজরবন্দি ব্যুরোঃ হাত জোড় করে সকলকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি, ভক্তদের বার্তা দিলেন শাহেনসা।করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ঐশ্বর্য ও আরাধ্যা, বিগ বি অমিতাভ এবং অভিষেক বচ্চন! তাঁদের আক্রান্ত হওয়ার খবর হাওয়ার বেগে ছড়িয়ে পড়ে দেশ তথা বিশ্ব জুড়ে। সিনিয়র বচ্চনের স্বাস্থ নিয়ে চিন্তিত হয়ে পড়েন অগনিত ভক্তকূল। বচ্চনদের আরোগ্য কামনায় যজ্ঞ পর্যন্ত আয়োজিত হয় কয়েক যায়গায়। আরোগ্য কামনায় ভেসে যায় সামাজিক মাধ্যম।

আরও পড়ুনঃ বাতিল হতে পারে বিধায়ক পদ! ফিরহাদের নামে মুখ্যসচিব কে চিঠি কমিশনের।

এবার সেই আরোগ্য কামনাকারীদের প্রত্যুত্তর দিলেন শাহেনসা। এদিন তিনি ট্যুইট করে লেখেন, “যাঁরা যাঁরা আমাদের সুস্থ হয়ে ওঠার আরোগ্য কামনা করেছেন, তাঁদের আলাদা আলাদা করে ধন্যবাদ জানাতে পারছিনা। হাত জোড় করে সকলকে একসঙ্গে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।” 

প্রসঙ্গত, COVID-19 -এ আক্রান্ত হওয়ার কথা নিজেই টুইট করে জানিয়েছেন বিগ বি। পরে কোভিড রিপোর্ট পজিটিভ আসে তাঁর ছেলে অভিষেক বচ্চনেরও । শনিবার সন্ধেবেলাই মুম্বইয়ের নানাবতী হাসপাতালে ভরতি হয়েছেন অমিতাভ। পরে টুইট করে নিজেই জানিয়েছেন যে, তিনি করোনা আক্রান্ত। অমিতাভের করোনা ধরা পড়ায় স্বাভাবিকবশতই কোভিড পরীক্ষা করানো হয় ছেলে অভিষেক, পূত্রবধূ ঐশ্বর্যা এবং আরাধ্যাকেও।

আরও পড়ুনঃ করোনা থাকবে ১ বছর, তাই ১ বছর ফ্রি রেশন দিচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী! কেষ্ট

বাড়ির পরিচারকদেরও কোভিড টেস্ট হয়। এরপরই শনিবার রাতে খবর আসে যে, করোনার উপস্থিতি ধরা পড়েছে অভিষেক বচ্চনের শরীরেও। অভিষেক বচ্চন নিজেই ট্যুইট করে জানিয়েছেন করোনা আক্রান্ত হওয়ার কথা। তিনি ট্যুইটে লিখেছেন, আজ আমি এবং আমার বাবা করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছি। আমাদের দুজনের শরীরেই করোনার উপসর্গ রয়েছে। আমি এবং বাবা দুজনেই হাসপাতালে ভর্তি রয়েছি।

অভিষেক আরও জানিয়েছেন, আমাদের বাড়ির সবার এবং সমস্ত কর্মীদের করোনা পরীক্ষা করা হচ্ছে। সবাই শান্ত থাকুন ধৈর্য্য ধরুন। বিচলিত হবেন না। আতঙ্ক ছড়াবেন না। এরপর দিন সকালে করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসে ঐশ্বর্য রাই বচ্চন এবং আরাধ্যারও। মহারাষ্ট্রের স্বাস্থ মন্ত্রী এই বিষয়ে জানিয়েছেন সংবাদমাধ্যম কে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x