শুভেন্দুকে মানবেন না বিরোধী দলনেতা পদে, ইস্তফা দিতে প্রস্তুত BJP-র ৩৪ বিধায়ক

শুভেন্দুকে মানবেন না বিরোধী দলনেতা পদে, ইস্তফা দিতে প্রস্তুত BJP-র ৩৪ বিধায়ক
শুভেন্দুকে মানবেন না বিরোধী দলনেতা পদে, ইস্তফা দিতে প্রস্তুত BJP-র ৩৪ বিধায়ক

নজরবন্দি ব্যুরো: শুভেন্দুকে মানবেন না বিরোধী দলনেতা পদে, কানাঘুষো থাকলেও ক্রমশ প্রকাশ্য হচ্ছে মনোমালিন্য। তার জেরে এবার গণ ইস্তফার হুমকি দিয়েছেন দিলীপ পন্থী একঝাঁক বিজেপি বিধায়ক। আর তাতে অনেকেই মনে করছেন রাজ্য রাজনীতিতে প্রকট হবে অধিকারী- ঘোষ দ্বন্দ্ব। নির্বাচনের আগে থেকেই তৃণমূলের দলত্যাগীদের নিয়ে বিজেপির ঘর যত ভারী হয়েছে, মতবিরোধ তৈরি হয়েছে তত বেশি।

আরও পড়ুনঃ অবশেষে মনে পড়ল, অভিষেকের পরেই মুকুলের স্ত্রী’কে দেখতে ছুটলেন দিলীপ!

ঘাসফুল শিবিরের নেতা মন্ত্রীরা পদ্মবনে ভিড় জমাতেই একপ্রকার আদি নব্য দ্বন্দ্ব শুরু হয়েছিল। সেই দ্বন্দ্ব প্রকাশ্যে চরম আকার নিয়েছিল ২১এর নির্বাচনে বিজেপির বহু দিনের নেতা মন্ত্রীদের বদলে প্রার্থী তালিকায় নবাগত দের নাম দেখে। একাধিক জায়গায় প্রার্থী পছন্দ না হওয়ায় বিক্ষোভ দেখিয়েছিলেন সাধারণ কর্মীরা। কোথাও কোথাও আদি বিজেপির পক্ষ থেকে প্রার্থী নাম মনোনীত করে দেওয়াল লিখনও হয়েছিল।

সেই সময়ে ভোট চোকাতে আপদকালীন ড্যামেজ কন্ট্রোল হলেও ভোটে ভরাডুবির পর ফের প্রকাশে এসেছে কোন্দল। আত্মবিশ্বাস এবং কেন্দ্রীয় নেতাদের রোজকার যাতায়াতের পরেও গেরুয়া শিবিরের রথের চাকা ১০০ এর আগে আটকে যাওয়ায় একে একে মুখ খুলেছেন জেলাস্তরের নেতারা। বিজেপির একাধিক প্রথম সারির নেতারা ভোটের ভরাডুবির কারণ হিসেবে আঙুল তুলেছেন প্রথম সারির মুখ আর অহেতুক যোগদান মেলা করে ভিড় বাড়ানোকে।

এই মুহূর্তে বিজেপির নেতা মন্ত্রীরা যখন একপ্রকার চুপ আছেন, তখন ফের একবার উঠে আসছে দলের ভাঙন। একেই বিজেপির হারের পর অনেকের ভুল ভাঙছে বলে ফিরছেন পুরনো ঘরে, কেউ বা অপেক্ষা করছেন পুরনো সংসার থেকে ডাকের। তবে এবার ক্ষোভ খোদ ঘাসফুল থেকে পদ্মবনের ভিড়ের হোতা শুভেন্দু অধিকারীকে নিয়ে। ক্রমে দলের পুরনো মুখেদের পিছনে ফেলে রাজ্যের বিরোধী দলনেতা হয়েছেন তিনি। কিন্তু বিজেপির ভেতরের খবর তৃণমূল থেকে বিজেপিতে এসেই বিরোধী দলনেতা পদ-লাভে আদতে খুশি নয় দলের এক বিরাট অংশ।

শুভেন্দুকে মানবেন না বিরোধী দলনেতা পদে, সূত্রের খবর দিলীপ পন্থী ৩৪ জন বিজেপি বিধায়কই মানতে পারছেন না তাঁকে বিরোধী দলনেতা হিসেবে। তাঁদের দাবি বিজেপির পুরনো নেতা বিধায়কদের মধ্যে থেকে কেউ যান ওই পদে। এমনকি দলের এক নেতার মতে এখনই বিজেপি সিদ্ধান্তে বদল না ঘটালে গণ ইস্তফার পথে হাঁটবেন বলেও হুমকি দিয়েছেন তাঁরা। ওয়াকিবহাল মহলের মতে, এতদিন ধরে যে গুঞ্জন ঘুরেছে, সদ্য বিজেপিতে এসেই প্রশংসা থেকে দায়িত্বে, বহুদিনের কর্মী- নেতা দিলীপের আলো কাড়ছিলেন শুভেন্দু। এই ঘটনার পর আরও প্রকট হবে ঘোষ-অধিকারীর ঠান্ডা লড়াই।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here