মাদ্রাসা সার্টিফিকেটের বৈধতা অস্বীকারের পেছনে বড়সড় চক্রান্ত! এবার হাইকোর্টে পর্ষদ।




নজরবন্দি ব্যুরোঃ পশ্চিমবঙ্গ মাদ্রাসা শিক্ষা পর্ষদের সার্টিফিকেটকে ‘বেআইনি’ বলে ডাক বিভাগ মাদ্রাসা পড়ুয়াদের ভারতীয় ডাক বিভাগে চাকরির প্রবেশাধিকার কেড়ে নেয় একপ্রকার। বলা হয়, রাজ্যের শিক্ষা দপ্তরের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, পশ্চিমবঙ্গ মাদ্রাসা পর্ষদ যে সার্টিফিকেট ইস্যু করে তা অবৈধ। কিন্তু এবিষয়ে শিক্ষা দপ্তরকে মাদ্রাসা পর্ষদের দেওয়া চিঠি এবং শিক্ষা দপ্তরের উত্তর পরিস্থিতিতে আরও জটিল করে তুললো।

ডাক বিভাগের তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়, রাজ্যের শিক্ষা দপ্তরের দেওয়া রিপোর্ট মোতাবেক, মাদ্রাসা পর্ষদের দেওয়া ছাড়পত্র বেআইনি। এই ইস্যুতে ডাক বিভাগে মাদ্রাসা পড়ুয়াদের চাকরি অনিশ্চিত হয়ে যায়। এরপর পশ্চিমবঙ্গ মাদ্রাসা শিক্ষা পর্ষদ শিক্ষা দপ্তরকে চিঠি দিয়ে জানতে চায় বিষয়টি। শিক্ষা দপ্তর জানায়, এব্যাপারে ডাক বিভাগের সঙ্গে কোনো কথাই হয়নি তাদের। শিক্ষা দপ্তরের এই জবাবের পরেই শুরু হয়েছে নতুন জটিলতা। তাহলে কি এর পেছনে রয়েছে বড় কোনো চক্রান্ত? পরিস্থিতি আরও জটিল হয়েছে যখন রাজ্য সরকার এতো কিছুর পরেও বিষয়টি নিয়ে কোনো বিবৃতি দেয়নি।

তবে সমস্যার গভীরে গিয়ে সেই সমস্যা মোকাবিলার চেষ্টা করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন মাদ্রাসা পর্ষদের সভাপতি। তিনি বলেন, এরপর হাইকোর্টের দ্বারস্থ হবে পর্ষদ। এদিকে অসংখ্য পড়ুয়াদের স্বার্থে সার্টিফিকেট বিতর্ক দ্রুত মেটানোর জন্য মাদ্রাসা শিক্ষা পর্ষদকে স্মারকলিপি প্রদান করেছে এসএফআই এবং ডিওয়াইএফআই। বিষয়টিকে গুরুত্ব দিয়ে সমাধানের চেষ্টা চালাচ্ছেন পর্ষদ সভাপতি।


Loading…

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*